Monday 23rd of January 2017

সদ্য প্রাপ্তঃ

****ছাত্রলীগের ঢাকা কলেজ শাখার আহ্বায়কসহ ১৯ নেতাকর্মীকে বহিষ্কার *তরুণীর মামলায় গ্রেফতার ক্রিকেটার আরাফাত সানি * শান্তি কামনায় শেষ হলো ৫২তম বিশ্ব ইজতেমা***

Bangladesh Manobadhikar Foundation

Khan Air Travels

এ বছর ৮ লাখ কর্মী বিদেশে পাঠানো হবে

বিডিনিউজডেস্ক ডেস্ক | তারিখঃ ০৮.০১.২০১৭

প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী নূরুল ইসলাম বিএসসি বলেছেন,

সরকারের টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) অর্জনে এবং বৈদেশিক কর্মসংস্থানের বর্তমান ধারা অব্যাহত রাখতে ২০১৭ সালে ৮ লক্ষাধিক কর্মী বিদেশে পাঠানো হবে। তিনি বলেন, ২০১৬ সালে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে সর্বমোট ৭ লাখ ৫৭ হাজার ৭৩১ জন কর্মীর কর্মসংস্থান হয়েছে এবং বর্তমানে ১৬২টি দেশে প্রায় ১ কোটি ৫ লাখ বাংলাদেশি কর্মী কর্মরত আছেন।

রোববার দুপুরে ইস্কাটনে প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়ে ২০১৬ সালে মন্ত্রণালয়ের উল্লেখযোগ্য অর্জন ও কার্যক্রম সম্পর্কে এক প্রেস ব্রিফিংকালে এ সব তথ্য জানান তিনি।

এ সময় মন্ত্রণালয়ের সচিব বেগম শামছুন নাহার, অতিরিক্তি সচিব মোহাম্মদ আজহারুল হক, জনশক্তি ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর মহাপরিচালক সেলিম রেজাসহ অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

মন্ত্রী বলেন, সরকার নতুন নতুন শ্রমবাজার অনুসন্ধানসহ যে সকল দেশে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক বাংলাদেশের কর্মী রয়েছে তাদের সেবা এবং কল্যাণ নিশ্চিতকল্পে শ্রমউইং খোলার পরিকল্পনা নিয়েছে। বর্তমানে বিভিন্ন দেশে ২৯টি শ্রমউইং কাজ করছে। আরো কয়েকটি দেশে শ্রমউইং খোলা হবে বলে মন্ত্রী সাংবাদিকদের জানান।

বর্তমানে ১ লাখ ৬৫ হাজার টাকায় সৌদি আরবে কর্মী প্রেরণ করা হচ্ছে। বিভিন্ন দেশে গৃহকর্মী ও গামের্ন্টস খাত ছাড়াও অন্যান্য সম্ভাবনাময় খাতে দক্ষ মহিলা কর্মী প্রেরণের উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে বলে উল্লেখ করে তিনি জানানা, বিদেশে কর্মরত কর্মীদের কল্যাণ নিশ্চিত করতে দূতাবাসের শ্রমউইংয়ের কার্যক্রম আরও জোরদার করা হবে ।

মন্ত্রী আরো বলেন, ২০১৫ সালের তুলনায় ২০১৬ সালে ৩৬.৩১ শতাংশ বেশি কর্মী বিদেশে গমন করেছেন। ২০১৬ সালে ওমানে সর্বোচ্চ সংখ্যক কর্মী গমন করেছে ১ লাখ ৮৮ হাজার ২ শ’ ৪৭ জন এবং সৌদি আরবে গমন করেছেন ১ লাখ ৪৩ হাজার ৯ শ’ ১৩ জন।

তিনি বলেন, গতবছর কুমিল্লা জেলা থেকে সর্বোচ্চ সংখ্যক ৮৬ হাজার ৩ শ’ ৫২ জন কর্মী বিদেশে গমন করেছেন। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে চট্টগ্রাম জেলা। ২০১৬ সালে চট্টগ্রাম থেকে ৪৫ হাজার ৭শ’ ৮০ জন কর্মী বিদেশে গিয়েছেন বলে মন্ত্রী উল্লেখ করেন।

তিনি বলেন, ২০১৬ সবচেয়ে বেশি রেমিটেন্স এসেছে সৌদি আরব থেকে ২ হাজার ৯ শ’ ৮৯ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। তারপরই এসছে সংযুক্ত আরব আমিরাত থেকে ২ হাজার ৫ শ’ ৩৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার।

মন্ত্রী বলেন, ২০১৬ সালে ৬টি আইএমটি ও ৬৪টি কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রসহ মোট ৭০টি কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের মাধ্যম ৩ লাখ ৭ হাজার ৮ শ’ ৪৯ জন কর্মীকে দেশে ও বিদেশে কর্মসংস্থান লাভের উদ্দেশ্যে ৪৮টি ট্রেডে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়েছে। এরমধ্যে ৭৮ হাজার ৮ শ’ ১৬ জন মহিলা কর্মী প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেছেন। ২০১৫ সালের তুলনায় ২০১৬ সালে ১৯.৩৭ শতাংশ বেশি কর্মীকে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়েছে।

মন্ত্রী আরো জানান, প্রশিক্ষিত জনগোষ্ঠি গড়ে তোলার জন্য বর্তমানে ৪০টি উপজেলায় ৪০টি টিটিসি স্থাপনের কাজ চলছে এবং আরও ৫০টি উপজেলায় ৫০টি টিটিসি স্থাপনের কার্যক্রম হাতে নেওয়া হয়েছে। ২০১৬ সালে ৪ হাজার ৬ শ’ ৩৮ জন কর্মী প্রোফেশনাল, ৩ লাখ ১৮ হাজার ৮ শ’ ৫১ জন দক্ষ, ১ লাখ ১৯ হাজার ৯ শ’ ৪৬ জন আধা-দক্ষ এবং ৩ লাখ ১৪ হাজার ২ শ’ ৯৬ জন স্বল্প-দক্ষ কর্মীর বিদেশে কর্মসংস্থান হয়েছে।

তিনি আরো জানান, বর্তমানে ঢাকা ছাড়াও চট্টগ্রাম ও সিলেট থেকে সরাসরি বহির্গমন ছাড়পত্র ও স্মার্ট কার্ড প্রদান করা হচ্ছে। এই কার্যক্রম জেলা পর্যায়ে শুরু করা হবে।

তিনি আরো জানান, প্রবাসে অবস্থানরত বাংলাদেশি কর্মীরা যেন সরাসরি তাদের অভিযোগ ও সমস্যার বিষয়ে বাংলাদেশ সরকারকে অবহিত করতে পারে সে লক্ষ্যে প্রবাস বন্ধু কল (+০৯৬৫৪৩৩৩৩৩৩) সেন্টার স্থাপন করা হয়েছে। ১লা সেপ্টেম্বর ২০১৬ থেকে সৌদি আরব, জর্ডান মালয়েশিয়ায় অবস্থানরত ২৫ লাখ কর্মী সরাসরি এ সেবা পাচ্ছে। পর্যায়ক্রমে অন্যান্য দেশেও এ সেবা চালু করা হবে। তাছাড়া সংযুক্ত আরব আমিরাত ও ওমান দূতাবাসে হটলাইন চালু হয়েছে বলে মন্ত্রী জানান।