মুদ্রণ

এমার ফেসবুক স্ট্যাটাসে বাংলাদেশ
বিনোদন ডেস্ক | তারিখঃ ০১.০৯.২০১৫

সাধারণত তথ্যচিত্র নিয়ে এতটা হুল্লোড় পড়ে না হলিউডে। কিন্তু দ্য ট্রু কস্ট নিয়ে দারুণ আলোচনা চলছে এখন।

খোদ হলিউড অভিনেত্রী এমা ওয়াটসন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এই তথ্যচিত্রে নিয়ে কথা বলেন। তাঁর মতে এটি নাকি ফ্যাশনসচেতন সবার দেখা উচিত। সঙ্গে তিনি এও বলেন, এই তথ্যচিত্র সবাইকে বুঝিয়ে দেবে কেন তিনি নিভৃতে বাংলাদেশ সফরে এসেছিলেন।
এন্ড্রু মরগ্যান পরিচালিত দ্য ট্রু কস্ট তথ্যচিত্রটি তৈরি হয়েছে পোশাকশিল্পকে ঘিরে। বিশ্বের উন্নত দেশগুলোর নিত্যনতুন আরামদায়ক পোশাকের পেছনে কাদের পরিশ্রম জড়িয়ে আছে, তা দেখানো হয়েছে এতে। তাই স্বাভাবিকভাবেই তথ্যচিত্রে উঠে এসেছে তৈরি পোশাক রপ্তানির তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে থাকা বাংলাদেশের চিত্র। ইতিবাচক ও নেতিবাচক—দুই দিক থেকেই পরিচালক তুলে ধরেছেন বাংলাদেশকে। তথ্যচিত্রে বাংলাদেশ, চীন, ভারতসহ বিভিন্ন দেশের পোশাকশিল্পের সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিদের কথা তুলে ধরা হয়েছে। এমা ওয়াটসন তাঁর ফেসবুক পেজ, টুইটার, ইনস্টাগ্রামে লিখেছেন বাংলাদেশের কথা। তিনি লেখেন, ‘বেশ কিছু সময় ধরেই আমি এটা নিয়ে লেখার চেষ্টা করছিলাম। দেখে নাও কেন আমি পিপল ট্রির হয়ে কাজ করা শুরু করি, বাংলাদেশ সফরে যাই এবং ইকো এজ গ্রিন কার্পেট চ্যালেঞ্জ নিই। দ্য ট্রু কস্ট ছবিটি দেখো।’ ২৬ আগস্ট এই পোস্টটি করেন হ্যারি পটার–খ্যাত এমা।পরিবেশবান্ধব পোশাক তৈরির প্রতিষ্ঠান পিপল ট্রির মুখপাত্র এমা ওয়াটসন। ২০১০ সালে এই প্রতিষ্ঠানের হয়েই বাংলাদেশ সফরে আসেন তিনি। সে সময় ঢাকার বেশ কিছু পোশাক তৈরির কারখানাও তিনি ঘুরে দেখেন। দ্য ট্রু কস্ট দেখার পর তাঁর সেই বাংলাদেশ ভ্রমণের কথাই মনে পড়ে গেল আবার।