Tuesday 6th of December 2016

সদ্য প্রাপ্তঃ

***ভারতের তামিলনাড়ু রাজ্যের ছয়বারের মুখ্যমন্ত্রী জয়ললিতা মারা গেছেন বলে খবর স্থানীয় টিভির, হাসপাতালের অস্বীকার * আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে প্রসিকিউটর ব্যারিস্টার ড. তুরিন আফরোজের বাবা তসলিমউদ্দিন আহমেদ (৭২) ল্যাবএইড হাসাপাতালে লাইফ সাপোর্টে***

Bangladesh Manobadhikar Foundation

Khan Air Travels

UCB Debit Credit Card

ডি-এইট সম্মেলনে যোগ দিতে মিশর যাচ্ছেন আমু

বিডিনিউজডেস্ক ডেস্ক | তারিখঃ ০৭.০৫.২০১৬

মিশরের রাজধানী কায়রোতে অনুষ্ঠেয় পঞ্চম ডি-৮ শিল্পমন্ত্রী সম্মেলনে অংশ নিতে শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু মিশর যাচ্ছেন।

আগামী সোমবার (৯ মে) এ সম্মেলন শুরু হবে। বুধবার (১১ মে) কায়রো ঘোষণার মধ্যদিয়ে এ সম্মেলন শেষ হবে। রোববার সকালে কায়রোর উদ্দেশে ঢাকা ত্যাগ করবেন তিনি। শিল্প মন্ত্রণালয় সূত্র এ তথ্য জানিয়েছে।সম্মেলনে শিল্পমন্ত্রী তিন সদস্যের বাংলাদেশ প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দেবেন। শিল্প মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো. মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া ও উপসচিব মো. আমিনুর রহমান প্রতিনিধিদলে সদস্য হিসেবে অন্তর্ভুক্ত রয়েছেন। সম্মেলনে বাংলাদেশ ছাড়াও ডি-৮ সদস্যভুক্ত অন্য দেশের শিল্পমন্ত্রীরা অংশ নেবেন। এর আগে উচ্চ পার্যায়ের কর্মকর্তাদের সভা অনুষ্ঠিত হবে। একইসঙ্গে ১৩টি শিল্পখাত ভিত্তিক টাস্কফোর্সের সভা অনুষ্ঠিত হবে। এসব সভায় ডি-৮ সদস্যভুক্ত দেশের ঊর্ধ্বতন সরকারি কর্মকর্তা এবং বেসরকারি শিল্প ও বাণিজ্য প্রতিনিধিদলের সদস্যরা সক্রিয়ভাবে অংশ নেবেন। মিশরে অনুষ্ঠেয় এবারের সম্মেলনে শিল্পমন্ত্রী ডি-৮ সদস্য রাষ্ট্রগুলোর মধ্যে যৌথ বিনিয়োগ ও কারিগরি সহায়তা বৃদ্ধির ওপর গুরুত্ব দেবেন। তিনি সংস্থার সদস্য দেশগুলোর শিল্প উন্নয়ন ও তাদের মধ্যে দ্বি-পাক্ষিক ও বহুপাক্ষিক বাণিজ্য বৃদ্ধির লক্ষ্যে ডি-৮ সচিবালয় ও এর টাস্কফোর্সগুলোর কার্যক্রম শক্তিশালীকরণ এবং সদস্য দেশগুলোর চেম্বার ও ট্রেডবডির মধ্যে যোগাযোগ বৃদ্ধির তাগিদ দেবেন। সফরকালে শিল্পমন্ত্রী মিশর সরকারের কয়েকজন মন্ত্রী ও ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে দ্বি-পাক্ষিক বৈঠকে মিলিত হবেন। তিনি মিশরের বিভিন্ন চেম্বার ও শিল্প বণিক সংগঠনের নেতাদের সঙ্গেও মতবিনিময় করবেন।বাংলাদেশ, মিশর, ইন্দোনেশিয়া, ইরান, মালয়েশিয়া, নাইজেরিয়া, পাকিস্তান ও তুরস্কের উন্নয়ন সহযোগিতামূলক সংস্থা হিসেবে ডি-৮ পরিচিত। ১৯৯৭ সালের ১৫ জুন ইস্তাম্বুলে সদস্য রাষ্ট্রগুলোর সরকার ও রাষ্ট্র প্রধানদের শীর্ষ সম্মেলনের মাধ্যমে ডি-৮ আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু করে। বিশ্বের প্রধান প্রধান মুসলিম দেশগুলোর আন্তর্জাতিক সংগঠন হিসেবে এটি ইতোমধ্যে বৈশ্বিক বাণিজ্যে গুরুত্বপূর্ণ অবস্থান তৈরিতে সক্ষম হয়েছে।সংস্থাটির সদস্যভূক্ত ৮টি দেশ বিশ্বের মোট জনসংখ্যার শতকরা ১৩ ভাগ এবং সারাবিশ্বের মুসলিম জনসংখ্যার শতকরা ৬০ ভাগের প্রতিনিধিত্ব করে। বর্তমানে বিশ্বের অন্যান্য দেশের সঙ্গে ডি-৮ সদস্য রাষ্ট্রগুলোর বাণিজ্যের পরিমাণ ৫শ‘বিলিয়ন মার্কিন ডলারেরও বেশি।শিল্পমন্ত্রী ১৩ মে দেশে ফেরার কথা রয়েছে।