Print

জঙ্গি সন্দেহে আটক শ্রমিকদের প্রভাব পড়তে পারে সিঙ্গাপুরের শ্রমবাজারে

বিডিনিউজডেস্ক ডেস্ক | তারিখঃ ১১.০৫.২০১৬

বাংলাদেশি অভিবাসীদের জঙ্গি সংশ্লিষ্টতায় সিঙ্গাপুরে শ্রমবাজারে বিরূপ প্রভাবের আশঙ্কা করছে জনশক্তি রপ্তানিকারকদের সংগঠন বায়রা।

কর্মী নেওয়ার ক্ষেত্রে নতুন নতুন শর্ত আরোপ হতে পারে বলেও তাদের ধারণা। এজন্য বিদেশে কর্মী পাঠানোর ক্ষেত্রে সতর্ক থাকার পরামর্শ সংশ্লিষ্টদের। এ বিষয়ে কোন আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্র হচ্ছে কিনা তাও খতিয়ে দেখার পরামর্শ তাদের।বাংলাদেশের অন্যতম শ্রমবাজার সিঙ্গাপুর। দেশটির বিভিন্ন কোম্পানীতে ১৯৭৬ সালের পর থেকে প্রায় সাড়ে ৬ লাখ কর্মী পঠানো হয়েছে। যারমধ্যে এখনো ২ লাখ কর্মী সিঙ্গাপুরে অবস্থানরত। প্রবাসী আয়েরও একটি বড় অংশ আছে এ দেশ থেকে।
গত ৫ মাসের ব্যবধানে সিঙ্গাপুর থেকে জঙ্গি সন্দেহে দুই দফায় আটক করা হয় ৪০ জন বাংলাদেশিকে। বায়রা’র আশঙ্কা, শ্রমবাজারের ওপর নেতিবাচক প্রভাবসহ, কর্মী নেওয়ার ক্ষেত্রেও নতুন শর্ত আরোপ হতে পারে।
বায়রা’র সিনিয়র সহ-সভাপতি আলী হায়দার চৌধুরী বলেন, ‘সিঙ্গাপুরের শ্রমবাজারে বাংলাদেশি শ্রমিক নেওয়া এখন স্তব্ধ হয়ে যাবে। এবং বাজার ধরতে গেলে তারা বিভিন্ন শর্ত জুড়ে দেবে। যে পদ্ধতিটা সহজ ছিল সেটি অনেক কঠিন হয়ে যাবে।’
আশঙ্কা করা হচ্ছে, বাংলাদেশি কর্মীদের জঙ্গি সংশ্লিষ্টতার প্রভাব পড়তে পারে অন্য দেশগুলোতেও। রামরু’র সমন্বায়ক সি আর আবরার চৌধুরী বলেন, ‘ধর্মীয় গোষ্ঠীর সঙ্গে শ্রমিকদের সংশ্লিষ্টতা সত্যিই বড় ধরণের উদ্বেগের বিষয়। এবং এখন যদি সেটা আমরা ঠিক মত সমাধান না করতে পারি তাহলে আমাদের শ্রম বাজারের ওপর একটি বড় ধরণের হুমকি আসতে পারে।’