Print


তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক | তারিখঃ ০৪.১০.২০১৫

ট্যাক্সি কিংবা সিনএনজি খুঁজতে গিয়ে ঢাকার রাস্তায় চলাচলের সময় সবচেয়ে বেশী সমস্যায় পড়তে হয় । সেই সমস্যায় কথা মাথায় রেখেই চলো টেকনোলজিস নিয়ে এসেছে ‘চলো প্যাসেঞ্জার’ অ্যাপ্লিকেশন।

সর্বোচ্চ যাত্রী সেবা নিশ্চিত করার লক্ষ্য নিয়েই যাত্রা শুরু করেছে ‘চলো প্যাসেঞ্জার’। কল করার ৩০ মিনিটের মাথায় চলে আসবে ট্যাক্সি। জিপিএস ব্যবহার করে যাত্রীকে নিজেই খুঁজে নেবে এই অ্যাপ।
‘চলো’র কাস্টমার কেয়ার ম্যানেজার তামিম হাসান নিজেদের সেবা সম্পর্কে জানান, ‘কাছাকাছি যায়গায় থাকলে আমাদের ট্যাক্সি ১০ মিনিটের মধ্যেই যাত্রীর কাছে চলে আসবে। আমাদের নিয়োগ প্রাপ্ত ড্রাইভার সবাই অনেক অভিজ্ঞ এবং আন্তরিক। তাদের কমপক্ষে পাঁচ বছরের অভিজ্ঞতা আছে এবং তারা যাত্রীদের সাথে ইংলিশেও কথা বলতে পারে। এমনকি আমাদের সেবা অনেক কম খরচের মধ্যেই ব্যবহার করতে পারবে যাত্রীরা’।
আমেরিকার ক্যালিফোর্নিয়ার সিলিকন ভ্যালির ডেশ ভেঞ্চারের অংশ হিসেবে যাত্রা শুরু করে চলো টেকনোলজিস। এখন তারা কাজ করছে ঢাকার যাত্রীসেবা নিশ্চিত করতে।
সর্বনিম্ন ২০০ টাকা থেকে শুরু হবে তাদের সেবা। যাত্রীরা ক্রেডিট, ডেবিট কার্ড কিংবা বিকাশের মাধ্যমে টাকা পরিশোধ করতে পারবে। অ্যাপল স্টোর এবং গুগল প্লে স্টোর থেকে ডাউনলোড করা যাবে তাদের অ্যাপ।
ট্যাক্সি ছাড়াও তারা বিভিন্ন সময় প্রাইভেট কারও ভাড়া দিয়ে থাকে। তাদের কাছ থেকে অ্যালিয়ন, করোলা এক্স, এক্সিও, প্রিমিও এফ, নোয়া গাড়িও ভাড়া নেয়া যাবে। যে কেউ চাইলেই তাদের অ্যাপ্লিকেশন (https://play.google.com/store/apps/details?id=com.chalo) ডাউনলোড করে সেবা নিতে পারেন।
ঢাকাতে সার্ভিস নিশ্চিত করলেও ভবিষ্যতে সারাদেশে সেবা দেয়ার স্বপ্ন দেখছে এই স্টার্টআপটি। এমনকি বাংলাদেশে এসইউভি, লিমুজিন এবং ইকো কার নিয়ে আসার মত পরিকল্পনা করছে তারা। বিস্তারিত: http://goo.glcUuLRs