মুদ্রণ

ভারতীয় সিনেমা আমদানি হবে: বলিউডের প্রতিনিধি দল ঢাকায়

বিডিনিউজডেস্ক.কম | তারিখঃ ০৭.১০.২০১৫

বাংলাদেশে ভারতীয় চলচ্চিত্র আমদানী এবং এর ব্যবসায়িক প্রসারের লক্ষ্যে ৬ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল ঢাকায় এসেছেন।

এ বছরের মধ্যেই বাংলাদেশের হলগুলোতে ভারতীয় চলচ্চিত্র প্রদর্শন নিশ্চিত করতে চায় তারা। মঙ্গলবার সচিবালয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহম্মেদ এবং তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনুর সঙ্গে এ বিষয়ে বৈঠক করে প্রতিনিধি দলটি। আর এ প্রতিনিধি দলে আছেন বলিউডের দুই মহারথি ভারতীয় পরিচালক-প্রযোজক মুকেশ ভাট ও রমেশ সিপ্পি।

এর আগে সোমবার দুপুর সোয়া ১২টায় শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে পৌঁছেন কালজয়ী হিন্দি ছবি 'শোলে' এর নির্মাতা রমেশ সিপ্পি, চলচ্চিত্রকার এবং ফিল্ম অ্যান্ড টেলিভিশন প্রডিউসার গিল্ড ইন্ডিয়া লিমিটেডের প্রেসিডেন্ট মুকেশ ভাট, প্রডিউসার গিল্ডের সিইও কুলমিট মাক্কার, রিলায়েন্স বিগ এন্টারটেইনমেন্টের চিফ অপারেটিভ শিবাশীষ সরকার, যশরাজ ফিল্মসের হেড অব দ্য ইন্টারন্যাশনাল ডিভিশন অবতার এবং ফেডারেশন অব ইন্ডিয়ান চেম্বার অ্যান্ড কমার্স ইন্ডাস্ট্রিজের জয়েন্ট ডাইরেক্টর লীনা জেসান।

জানা যায়, ফিল্ম অ্যান্ড টেলিভিশন প্রডিউসার গিল্ড অব ইন্ডিয়া লিমিটেডের আমন্ত্রণে ২৭ জুলাই প্রদর্শক সমিতির কর্মকর্তা ইফতেখার নওশাদ ও সুদীপ্ত কুমার দাস ভারত সফরে যান এবং দুদেশের চলচ্চিত্রের নানা দিক নিয়ে আলাপ-আলোচনা করেন। কর্মকর্তারা তখন ভারতীয় প্রতিনিধি দলকে বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ জানান। সেই আমন্ত্রণের অংশ হিসেবেই ভারতীয় দলের এই ঢাকা সফর।

তারই অংশ হিসেবে মঙ্গলবার দুপুরে ফিল্ম এন্ড টেলিভিশন প্রডিউসার্স গিল্ড অব ইন্ডিয়া লিমিটেডের ছয় সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ ও তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনুর সাথে সচিবালয়ে বৈঠক করেন। সন্ধ্যায় বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিবেশক সমিতির সাথেও বৈঠকের কথা রয়েছে তাদের।

উল্লেখ্য, দীর্ঘদিন ধরেই ভারতীয় চলচ্চিত্র আমদানীর বিপক্ষে কথা বলে আসছেন দেশের চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্টদের একাংশ। তাদের মতে দেশিয় চলচ্চিত্রের বর্তমান অবস্থায় ভারতীয় চলচ্চিত্রের আমদানী ঘটলে তাতে দেশিয় চলচ্চিত্র ধ্বংশ হবে। তবে ব্যবসায়িক স্বার্থে প্রদর্শক সমিতি বরাবরই ভারতীয় চলচ্চিত্র আমদানীর পক্ষে তাদের তৎপরতা চালিয়ে যা্চ্ছে।