Print

সিডনিতে বাসভূমি টিভি আয়োজিত সুধি সমাবেশ অনুষ্ঠিত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | তারিখঃ ১৬.০৫.২০১৬

১৫ মে বিকেল পৌনে ৫টায় রকডেলস্থ কস্তূরী ফাংশন সেন্টারে অস্ট্রেলিয়ার সর্বপ্রথম বাংলা অনলাইন টেলিভিশন ‘বাসভূমি টিভি’র প্রচার উপলক্ষে এই

টেলিভিশন চ্যানেলটিকে ঘিরে সিডনি প্রবাসীদের প্রত্যাশা ও বাসভূমির প্রস্তুতি নিয়ে একটি খোলামেলা মতবিনিময় ও সুধি সমাবেশের আয়োজন করা হয়। আগামী জুলাই মাসের প্রথম সপ্তাহ থেকে অস্ট্রেলিয়ার সর্বপ্রথম বাংলা অনলাইন টেলিভিশন ‘বাসভূমি টিভি’ প্রচার শুরু করবে।
এই মত বিনিময় সভায় আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে লেখক, শিল্পী, সাংবাদিক, রাজনীতিক, ব্যবসায়ী, গৃহিণীসহ নানা পেশার সিডনি প্রবাসীরা উপস্থিত ছিলেন।
সভার শুরুতে সাইয়েদা তাজ্জি বাসভূমির কর্ণধার আকিদুল ইসলামকে অনুষ্ঠানটি উপস্থাপন করার আমন্ত্রণ জানালে তিনি স্বাগত ভাষণে বলেন, ‘বাসভূমি টেলিভিশন সকলের হাত ধরে আমাদের সকল শুদ্ধ পূর্বসুরীর পদচিহ্ন অনুসরণ করে এগুতে চায়। বাসভূমির দীর্ঘ ১৩ বছরের আলোকিত অর্জনকে আরও বেগমানের শুদ্ধতা দিয়ে আমরা সামনের দিকে এগিয়ে যাব। অতীতে পথের বাঁককে বাসভূমি পথের শেষ ভেবে দাঁড়িয়ে পড়েনি। ভবিষ্যতেও দাঁড়াবে না। বাসভূমি কখনই নিজের গন্তব্য না জেনে যাত্রা শুরু করে না আর এবারও করেনি। আমাদের কাছে আমাদের ঠিকানা সুনির্দিষ্ট। তাই পথ হারাবার ভয় নেই।’

আমরা আমাদের আদর্শিক ঘোষণায় বলেছি, বাসভূমি নিরপেক্ষ নয়। এটিই আসলে বাসভূমির সকল শক্তি আর সাহসের উৎস। আমাদের সকল পক্ষপাতিত্ব প্রিয় মাতৃভূমির স্বাধীনতা ও তার শাণিত চেতনার প্রতি। আমাদের পক্ষপাতিত্ব ত্রিশলক্ষ শহীদের আত্মত্যাগ ও তাদের রেখে যাওয়া স্বপ্নের প্রতি। আমাদের পক্ষপাতিত্ব আছে সকল শুদ্ধতা আর সকল সৃষ্টিশীলতার প্রতি। আমাদের এই পথ চলার সঙ্গী হিসেবে আমরা চাই সকল সৃজনশীল বুদ্ধিদীপ্ত মানুষকে।’

তারপর তিনি অতিথিদের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দিতে বাসভূমি টিভির পরিচালনা টিমকে আহ্বান জানালে টনি ইসলাম, আবিদা রুচি, প্রভাত হাসান, সাইয়েদা তাজ্জি, সুহৃদ সোহান ও শায়লা মঞ্চে আসন গ্রহণ করেন।
সভার এই পর্বে আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত লেখক, শিল্পী, সাংবাদিক, রাজনীতিক, ব্যবসায়ী, সামাজিক সংগঠনের নেতারা, স্থানীয় কাউন্সিলর ও এমপিসহ নানা পেশার সিডনি প্রবাসীরা বাসভূমি টিভির প্রতি তাদের প্রত্যাশা, ভাবনা, সু-চিন্তিত মতামত, দিক নির্দেশনা ও বাসভূমির প্রস্তুতি নিয়ে একটি গঠনমুলক ও খোলামেলা আলোচনায় অংশ নেন।
এই প্রতিষ্ঠানটির কাছে সবার প্রত্যাশা ছিল আকাশচুম্বী। কারণ বাসভূমি অতীতে প্রবাসীদের স্বপ্ন দেখানোর পাশাপাশি প্রত্যাশা পূরণে উদ্যোগী ভূমিকা পালন করেছে।
বক্তারা বলেন, সিডনিসহ সারা অস্ট্রেলিয়ায় প্রায় এক লাখ বাংলাদেশি বাস করছে। ক্রমে ক্রমেই অস্ট্রেলিয়া ছোট্ট এক টুকরো সবুজ বাংলাদেশে রূপান্তরিত হচ্ছে। এখানে বছর জুড়েই চলছে বিভিন্ন জাতীয়, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। ঘটা করে পালিত হচ্ছে পহেলা বৈশাখ, বিজয় ও স্বাধীনতা দিবস, ইদের ও পূজার অনুষ্ঠান, একুশে ফেব্রুয়ারি বইমেলাসহ ও নানা জাতীয় ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।
নতুন প্রজন্মের ছেলে-মেয়দের অংশগ্রহণে প্রতিটি অনুষ্ঠান প্রবাসী বাংলাদেশিদের এক গৌরবোজ্জ্বল ইতিহাসের সাক্ষী হয়ে থাকছে। এই প্রাপ্তি, সব সফলতা ও গৌরব বিশ্ববাসীর দরবারে তুলে ধরতে অস্ট্রেলিয়া থেকে প্রকাশিত অনলাইন ও পেপার মিডিয়ার পাশাপাশি, রেডিও ও দেশের কয়েকটি টিভি চ্যানেল অগ্রণী ভূমিকা পালন করছে। সেইসঙ্গে বাসভূমি টিভির সময়োপযোগী সিদ্ধান্ত এখানকার সাংস্কৃতিক পরিমণ্ডলে এক নূতন মাত্রা যোগ করবে।
তারা আরও বলেন, আমাদের গৌরবোজ্জ্বল দেশীয় ঐতিহ্য ও সাংস্কৃতিক পরিমণ্ডলকে আগামী প্রজন্মের মধ্যে ছড়িয়ে দিতে এবং যথাযথভাবে লালন করতে আমাদের প্রথম প্রজন্ম নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। বাসভূমি টিভি সার্বিক সমন্বয়ের মাধ্যমে এর সফলতা বিশ্ববাসীর কাছে অতি দ্রুত সময়ের মধ্যে তুলে ধরে অন্যান্যদেরও উদ্বুদ্ধ করতে পারে।
বাসভূমি টিভির পরিচালনা পর্ষদে চৌকস, সৃজনশীল ও উদ্দমি সদস্যরা গতানুগতিক বিনোদন ও সংবাদের এর গণ্ডি পেরিয়ে প্রবাসীদের নিত্য নতুন মানসম্মত অনুষ্ঠানমালা উপহার দিতে পারবে। সংবাদে স্থানীয় প্রবাসী বাংলাদেশিদের খবর অগ্রাধিকার ভিত্তিতে প্রচার করবে। ছোট বাচ্চাদের অংশগ্রহণে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের পাশাপাশি বাংলা শিক্ষার অনুষ্ঠান প্রবাসে তাদের বাংলা লিখতে ও পড়তে অগ্রণী ভূমিকা পালন করবে।

বক্তারা পরামর্শ জানিয়ে বলেন, ‘দেশের প্রতিটি জাতীয় ও সাংস্কৃতিক দিনগুলোতে বাসভূমি টিভি স্থানীয়দের নিয়ে অনুষ্ঠান প্রচার করলে নূতন নূতন প্রতিভা বিকশিত হবে সন্দেহ নেই। অস্ট্রেলিয়ার আনাচে কানাচে বহু প্রতিভাবান বাংলাদেশি রয়েছে যাদের একত্রিত করে বাসভূমি টিভি একটি সাংস্কৃতিক আন্দোলনের পটভূমি তৈরি করতে পারে।

নিরেপেক্ষতা বজায় রেখে বিভিন্ন পেশাজীবীদের সমন্বয়ে মানসম্মত সঠিক বিনোদন ও সংবাদ পরিবেশন বাসভূমি টিভির সফলতাকে অস্ট্রেলিয়ার গণ্ডি ছাড়িয়ে বহির্বিশ্বে দেশিও সংস্কৃতি ও ঐতিহ্যকে সমুন্নত রাখতে অগ্রণী ভূমিকা পালনে সহায়ক হবে বলে বক্তারা মত প্রকাশ করেন।

বাসভূমি টিভির পরিচালনা পর্ষদের সদস্য টনি ইসলাম জানান, প্রথমে পাক্ষিক ও পরবর্তীতে সাপ্তাহিক কার্যক্রম দিয়ে এই অনলাইন টিভি চ্যানেল যাত্রা শুরু করবে। তাদের পরিবেশনায় থাকবে টকশো, সংবাদ, মিউজিক ভিডিও, অনুসন্ধানী প্রতিবেদন, প্রবাসে প্রতিভা, প্রজন্ম ও পরিবার এবং সাম্প্রতিককালে ঘটে যাওয়া বাংলাদেশের বহুল আলোচিত বিষয়গুলি সম্পর্কে অস্ট্রেলিয়ায় বসবাসরত বিভিন্ন পেশাজীবী প্রবাসী বাংলাদেশিদের ভাবনা, সু-চিন্তিত মতামত, দিক নির্দেশনা ও প্রাত্যাহিক জীবনালেখ্য।

অনুষ্ঠানে বাসভূমির পক্ষ থেকে শাহী জামান টিটোকে ফুলের তোড়া দিয়ে বিশেষ সম্মাননা জানানো হয়। তিনি প্রথম বাংলাদেশি অস্ট্রেলিয়ান লিবারেল পার্টি থেকে আসন্ন ফেডারেল পার্লামেন্টের জাতীয় নির্বাচনে ওয়াটসন আসন থেকে ফেডারেল এমপি পদে নমিনেশন পেয়েছেন।

মতবিনিময় সভায় বাসভূমি টিভির আবহ সঙ্গীত অতিথিদের বাজিয়ে শোনানো হয়। আবহ সঙ্গীতের কথা লিখেছেন আকিদুল ইসলাম, সুর করেছেন আতিক হেলাল এবং কণ্ঠ দিয়েছেন আতিক হেলাল ও আরফিনা মিতা। মতবিনিময় সভার পর সাংস্কৃতিক পর্বে সংগীত পরিবেশন করেন স্বপ্ন ব্যান্ডের মিঠু। রাতের খাবারের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি করা হয়।