মুদ্রণ

ছিটমহলবাসী এখন রাষ্ট্রের নাগরিক
জাতীয় ডেস্ক | তারিখঃ ১৫.১০.২০১৫

নাগরিক বিলুপ্ত ছিটমহলবাসীকে উদ্দেশ্য করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আপনারা এখন আর নিজেদেরকে ছিটের বাসিন্দা মনে করবেন না।

ছিটমহলবাসী এখন রাষ্ট্রের নাগরিক। দাসিয়ারছড়া এখন ছিটমহল নয়, এটি বাংলাদেশের অন্তর্গত ফুলবাড়ির এলাকা।বৃহস্পতিবার বেলা ১১টা থেকে ছিটমহল দাসিয়ারছড়ার কালিরহাট বাজার সংলগ্ন প্রস্তাবিত গার্লস হাইস্কুল মাঠে এসে এ সুধী সমাবেশ তিনি এসব কথা বলেন। এর আগে দাসিয়ারছড়ার বিদ্যুৎ সংযোগ প্রদান কার্যক্রমের উদ্বোধন এবং ইডকলের প্রোগ্রামের অধীনে সোলার হোম সিস্টেম বিতরণ করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, আপনারা যেন অন্ধকারে না থাকেন সেজন্য ব্যবস্থা নিয়েছি। আড়াইহাজার পরিবারকে পল্লী বিদ্যুতের মাধ্যমে বিদ্যুৎ দেয়ার ব্যবস্থা করেছি। তিনটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নির্মাণ কাজ শুরু করেছি। হাইস্কুল, মসজিদভিত্তিক শিক্ষা ব্যবস্থার উদ্যোগ নিয়েছি। চিকিৎসা ব্যবস্থার জন্য উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। পঞ্চগড়, নীলফামারী, কুড়িগ্রামে কমিউনিটি ক্লিনিকের ব্যবস্থা করেছি। এছাড়া কাঁচা রাস্তা পাকা করার ব্যবস্থা করা হয়েছে।এর আগে সকালে হেলিকপ্টারে ঢাকা থেকে কুড়িগ্রামের উদ্দেশ্যে রওনা দেন প্রধানমন্ত্রী। তাকে নিয়ে হেলিকপ্টারটি সকাল সাড়ে ১০টার কিছু সময় পর ফুলবাড়ী উপজেলায় নির্মিত হেলিপ্যাডে অবতরণ করে। পরে সেখান থেকে তিনি সড়ক পথে দাসিয়ারছড়ায় আসেন।দাসিয়ারছড়ার কর্মসূচি শেষে প্রধানমন্ত্রী ফুলবাড়ী হেলিপ্যাডে ফিরে আসবেন। সেখান থেকে তিনি হেলিকপ্টারে কুড়িগ্রাম জেলা সদরে আসবেন। পরে দুপুর আড়াইটার দিকে কুড়িগ্রাম সরকারি কলেজ মাঠে আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় যোগদান করবেন। সেখানে তিনি বিভিন্ন উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন ও ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন।এ সময় তিনি ১৫টি উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের উদ্বোধন এবং ১৬টি উন্নয়ন কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন।