Print
বিভাগঃ জাতীয়

৭০ ভাগেরও বেশি মানুষ বিদ্যুতের আওতায় এসেছে

বিডিনিউজডেস্ক.কম

তারিখঃ ২১.০৩.২০১৫

প্রধানমন্ত্রীর বিদ্যুৎ, জ্বালানী ও খনিজসম্পদ উপদেষ্টা ড. তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরী বলেছেন, ২০০৮ সালে দেশের ৪৫ ভাগ এলাকা বিদ্যুতের আওতায় ছিল। বর্তমানে দেশের ৭০ ভাগেরও বেশী মানুষ বিদ্যুতের আওতায় এসেছে। ২০২১ সালের মধ্যে দেশের সব মানুষ বিদ্যুৎ পাবে।

রাজধানীর বিদ্যুৎ ভবনে বিদ্যুৎ, জ্বালানী ও খনিজসম্পদ মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে দুই দিনব্যাপী ‘সেক্টর লিডারস ওয়ার্কশপ-২০১৫’ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা ড. তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরী বলেন, বিদ্যুতের দাম তো আমরা বাড়াই না। এটা বিইআরসি করে। সেখানে বিভিন্ন কোম্পানির বিদ্যুৎ-গ্যাসের দাম বৃদ্ধির প্রস্তাবের ওপর শুনানি অনুষ্ঠিত হয়েছে। বিইআরসি সেটা বিবেচনা করছে। তারা যেমন সংশ্লিষ্ট কোম্পানির লাভ-লোকসানের কথা চিন্তা করে আবার সাধারণ মানুষের কষ্টের কথাও চিন্তা করে। এ ব্যাপারে আমাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার চেয়ে আর কেউ বেশী সহনশীল না।

তিনি বলেন, প্রতি মাসে দেড় লাখের মতো বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়া হচ্ছে। এর অধিকাংশই গ্রাম এলাকায়। দেশে প্রতিনিয়ত বিদ্যুতের চাহিদা বাড়ছে। আমরা চেষ্টা করছি। আমাদের এখন ১১ হাজার মেগাওয়াটের মতো গ্রিড কানেক্টেড পাওয়ার রয়েছে। যদিও বিদ্যুতের উৎপাদন ক্ষমতা ১৩ হাজার মেগাওয়াটের মতো। যখন বেশী গরম পড়বে এবং সেচের চাহিদা বেড়ে ৮ হাজার সাড়ে ৮ হাজার হয়তো পৌঁছবে। আমরা চেষ্টা করছি চাহিদা মেটানোর জন্য।

তৌফিক-ই-ইলাহী বলেন, আগে দিনে ৫-৭ ঘণ্টা লোডশেডিং হতো। প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে এ খাতের উন্নয়ন হয়েছে। এখন আর এভাবে লোডশেডিং হয় না।

প্রধানমন্ত্রীর এই উপদেষ্টা বলেন, অনেকেই (দেশ-বিদেশ) আমাদের বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধির কথা বলেন। কিন্তু এক্ষেত্রে দেশের আর্থসামাজিক, রাজনৈতিকসহ পারিপার্শ্বিক অবস্থাও বিবেচনায় থাকতে হবে।