মুদ্রণ

চিতাবাঘের মুখে আটকে গেল হাড়ি!

বিডিনিউজডেস্ক.কম | তারিখঃ ০৫.১০.২০১৫

পানির তৃষ্ণায় যেখানে মানুষই পাগল প্রায় হয়ে যায়, সেখানে পশুর যে কি অবস্থা হয় তা এবার দেখা গেল ভারতের রাজস্থানের এক চিতাবাঘকে দেখে।

রুক্ষ মরুপ্রদেশে তৃষ্ণা মেটাতে গিয়ে প্রায় জান হারাতে বসেছিল চিতাবাঘটি। তৃষ্ণায় পাগল প্রায় চিতাবাঘটির হঠাৎই নজরে পড়ে এক হাড়ি ভর্তি পানির। সেই পানি পান করতে যেয়ে দেরি বুঝি সহ্য হচ্ছিল না চিতাবাঘটির। তাই হাড়িতে মাথাটা পুরো ঢুকিয়েই সে পানি পান করতে শুরু করে। পানিপানের শেষে যখন মাথাটা বাইরে বের করতে যাবে, তখনই সে আঁচ করে বিপদটা। কিন্তু, ততক্ষণে দেরি হয়ে গেছে। মাথাটা একেবারে ফেঁসে গিয়েছে হাড়ির ভেতর।
জয়পুরের রাজসামান্দ জেলার সাদুলখেরা গ্রামের ঘটনা। চিতাবাঘটি যখন মাথা বের করার জন্য জোর চেষ্টা চালাচ্ছে, তখন তার তর্জন-গর্জন শুনে এলাকায় জড়ো হয়ে যান গ্রামবাসীরা। সাহায্যের জন্য কারো এগিয়ে যাওয়ার সাহস না হলেও, অনেকে চিতাবাঘটির সেই ছটফটানির ছবি ও ভিডিও তুলতে ব্যস্ত হয়ে যান। অবশেষে বনদপ্তরের কর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে চিতাবাঘটিকে উদ্ধার করে। ট্রাঙ্কুইলাইজার দিয়ে সেটিকে ঘুম পাড়িয়ে, তার মাথা থেকে বের করা হয় হাড়িটা। পাশের কুম্ভলগড় অভয়ারণ্য থেকে চিতাবাঘটি লোকালয়ে চলে এসেছিল বলে মনে করা হচ্ছে।