Monday 5th of December 2016

সদ্য প্রাপ্তঃ

***ভারতের তামিলনাড়ু রাজ্যের ছয়বারের মুখ্যমন্ত্রী জয়ললিতা মারা গেছেন বলে খবর স্থানীয় টিভির, হাসপাতালের অস্বীকার * আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে প্রসিকিউটর ব্যারিস্টার ড. তুরিন আফরোজের বাবা তসলিমউদ্দিন আহমেদ (৭২) ল্যাবএইড হাসাপাতালে লাইফ সাপোর্টে***

Bangladesh Manobadhikar Foundation

Khan Air Travels

UCB Debit Credit Card

ছয় বছর পর বিশ্বভ্রমণের গাড়ি ফেরত দিল কাস্টমস

জাতীয় ডেস্ক | তারিখঃ ১৩.০৫.২০১৬

যে গাড়ি নিয়ে বিশ্বভ্রমণে বের হয়েছিলেন চট্টগ্রাম শুল্ক বিভাগে আটকে থাকা সেই গাড়িটি প্রায় ৬ বছর পর ফিরে পেলেন গাড়ি চালিয়ে বিশ্বভ্রমণে বের হওয়া কানাডা প্রবাসী বাংলাদেশি নাগরিক ও মুক্তিযোদ্ধা আবদুস সাত্তার।

শুক্রবার বিকেলে শুল্ক বিভাগ গাড়িটি তার কাছে হস্তান্তর করে।উল্লেখ্য, ২০০৯ সালে গাড়ি চালিয়ে তিনি বিশ্বভ্রমণে বের হয়েছিলেন। সঙ্গী আরেক বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত কানাডীয়, নাম স্যাল বয়। ২৭টি দেশ পাড়ি দিয়েছিলেন তারা। ভ্রমণে ভূগোল পরিক্রমার অংশ হিসেবে এসেছিলেন নিজের প্রিয় দেশ, যে দেশটি অস্ত্র হাতে স্বাধীন করেছেন, সেই সবুজ বাংলাদেশে। কানাডার টরন্টো শহর থেকে ২০০৯ সালের ২ আগস্ট যাত্রা শুরু করে আটলান্টিক মহাসাগর পাড়ি দিয়ে ইংল্যান্ড, তারপর ইংলিশ চ্যানেল পার হয়ে ফ্রান্স, জার্মানি, পোল্যান্ড, অস্ট্রিয়া, সার্বিয়া, ইউক্রেন, রোমানিয়া, বুলগেরিয়াসহ আরও কয়েকটি দেশ ঘুরে তুরস্ক। তারপর ইরান, পাকিস্তান, ভারত হয়ে বাংলাদেশ সবই পরিকল্পনামতো চলছিল। পাকিস্তানে পৌঁছে করাচি স্থলবন্দর থেকে তিনি গাড়িটি তুলে দেন কনটেইনারে। উদ্দেশ্য ছিল বাংলাদেশের চট্টগ্রাম বন্দর থেকে গাড়িটি নিয়ে আবার বিশ্বভ্রমণে বেরিয়ে পড়া।আবদুস সাত্তার ২০১০ সালের ২৯ মে বাংলাদেশে পৌঁছেন। আর তাঁর স্বপ্ন আটকে চায় নিজ দেশে। প্রায় ৬ বছর ধরে তাঁর গাড়িটি আটকে থাকে চট্টগ্রাম শুল্ক বিভাগে। গাড়িটি ছাড়ানোর জন্য হন্যে হয়ে ঘুরেছেন। অসংখ্য মন্ত্রণালয়, দফতর, রাজস্ব বিভাগ ও সরকারি বড় কর্তাদের টেবিল থেকে টেবিলে ঘুরেছেন। কিন্তু ফল পাননি।অবশেষে আজ সেই গাড়িটি ফেরত পেলেন আবদুস সাত্তার।