Print

দেশকে অস্থিতিশীল করার ষড়যন্ত্র করছেন খালেদা

জাতীয় ডেস্ক | তারিখঃ ১০.১০.২০১৫

দেশে ব্যর্থ হয়ে খালেদা জিয়া বিদেশে বসে নতুন করে ষড়যন্ত্র করছেন বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

আজ শনিবার দুপুরে গণভবনে গাজীপুর, গোপালগঞ্জ, চট্টগ্রাম, বরিশাল ও রংপুরের আইনজীবী সমিতির নবনির্বাচিত নেতাদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে এ মন্তব্য করেন তিনি। শেখ হাসিনা বলেন, খালেদা জিয়া দেশে থেকে নিজের অফিসে বসে আন্দোলনের নামে টানা ৯২ দিন পুড়িয়ে মানুষ হত্যা করেছেন। এ আন্দোলনে তিনি ব্যর্থ হয়েছেন। কারণ, দেশের মানুষ এতে সাড়া দেয়নি। তিনি বলেন, দেশে আন্দোলন করে ব্যর্থ হয়ে খালেদা জিয়া এখন বিদেশে বসে দেশকে অস্থিতিশীল করার চেষ্টা করছেন। সেখানে বসে ষড়যন্ত্র করছেন। অপপ্রচার করে প্যানিক ছড়ানোর চেষ্টা করছেন। ইউএস, ইউকে, ইউরোপে লবিস্ট রেখে জামায়াত-বিএনপি দেশের অনেক বদনাম করছে। বিদেশে বসে বাংলাদেশে যে বিদেশি থাকে, তাদের হত্যা করে আতঙ্ক ছড়াচ্ছে। তারা আন্দোলনের কৌশল পাল্টেছে। প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, বাংলাদেশে বসবাসকারী বিদেশি নাগরিককে হত্যা করে দেশের ভাবমূর্তি নষ্ট করার চেষ্টা করছেন। যখনই দেশ সম্মান পায়, তখনই তাদের মধ্যে পীড়া শুরু হয়। বিএনপি চেয়ারপারসন স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য বর্তমানে লন্ডনে রয়েছেন। তার ছেলে তারেক রহমান ২১ অগাস্টের গ্রেনেড মামলায় হুলিয়া নিয়ে যুক্তরাজ্যে রয়েছেন। সম্প্রতি বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকা ও রংপুরে এক ইতালীয় ও এক জাপানিকে গুলি চালিয়ে হত্যা করা হয়। এরপর প্রধানমন্ত্রী বিএনপি-জামায়াতের দিকে ইঙ্গিত করলে তার প্রতিক্রিয়ায় মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছিলেন, এতে এই হত্যাকাণ্ডের তদন্ত বিঘ্নিত হবে।