Bangladesh Manobadhikar Foundation

Khan Air Travels

Premier Bank Ltd

২৮০ দিনে গড়াল বিএনপির অবরোধ
বিডিনিউজডেস্ক.কম | তারিখঃ ১২.১০.২০১৫

বিএনপির নেতৃত্বাধীন ২০-দলীয় জোটের ডাকা অবরোধ ২৮০ তম দিনে গড়াল আজ সোমবার।

জোটের ‘চলমান’ এই হরতাল ও অবরোধ নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেছে যুক্তরাজ্যের পররাষ্ট্র দপ্তর। এই অবরোধ ও হরতাল নিরাপত্তাহীনতার কারণ হতে পারে বলেও দেশটি তাদের দেশের নাগরিকদের সতর্ক করেছে।বাংলাদেশে বসবাসরত ও ভ্রমণ-ইচ্ছুকদের জন্য দেশটির পররাষ্ট্র দপ্তরের এক বার্তায় এ কথা বলা হয়েছে।গত ৯ অক্টোবর বাংলাদেশ সময় বিকেল পাঁচটার দিকে সন্ত্রাসবাদের উচ্চ ঝুঁকি, পশ্চিমাদের লক্ষ্য করে আবার হামলা হতে পারে শীর্ষক এই সতর্কবার্তাটি পররাষ্ট্র দপ্তরের ওয়েব সাইট ও তাদের ফেস বুক পেজে আপলোড করা হয়।
সরকার পতন ও তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের দাবিতে চলতি বছরের ৬ জানুয়ারি থেকে টানা অবরোধ ও হরতালের ডাক দেয় বিএনপি জোট। জোটের ডাকা সেই অবরোধে ২৮০ তম দিন আজ। বাস্তবে এই হরতাল ও অবরোধের কার্যকারিতা দেখা না গেলেও বিএনপি জোট আনুষ্ঠানিকভাবে ওই কর্মসূচি প্রত্যাহার করেনি। এই বিষয়টি নিরাপত্তাহীনতার অন্যতম কারণ হতে পারে বলে উল্লেখ করে যুক্তরাজ্য এক বার্তায় নিজ নাগরিকদের সতর্ক করেছে।
যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তরের বার্তায় এ ব্যাপারে বলা হয়েছে, বাংলাদেশে সরকার ও বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০-দলীয় জোটের মধ্যে অস্থিরতা চলছে। চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে বিরোধীরা দেশব্যাপী সড়ক, নৌ ও রেলপথে অবরোধ ডাকে। পাশাপাশি হরতালের কর্মসূচি দেয়। এরপর কয়েক মাসে অনেক মানুষ মারা যায়। এর মধ্যে গণপরিবহনে আগুন দেওয়ায় অনেকে মারা যায়। যদিও এই হরতাল ও অবরোধ আনুষ্ঠানিক ভাবে তুলে নেওয়া হয়নি। তবে এই রাজনৈতিক হানাহানি চলতি বছরের এপ্রিল মাস থেকে কমে আসে।
প্রতিবেদনে আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়, এই প্রতিবাদ ও আন্দোলন দ্রুতই সহিংসতায় রূপ নিতে পারে এবং আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়তে পারে। সারা দেশে বিশেষ করে নগর ও মহানগরে যেকোনো সময়ে সহিংস হামলা, অগ্নিসংযোগ ও ভাঙচুর ছড়িয়ে পড়তে পারে।
এ কারণে দেশটি এখানে বসবাসরত নাগরিক ও ভ্রমন-ইচ্ছুকদের ব্যক্তিগত নিরাপত্তা ব্যাপারে সর্বোচ্চ সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছে। বিশেষ করে বড় লোকসমাগমস্থল, রাজনৈতিক দলের কার্যালয় এবং মিছিল-সমাবেশ স্থলে বিশেষ সতর্কতা বজায় রাখতে বলা হয়েছে।
জানতে চাইলে বিএনপির মুখপাত্র ও দলটির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক আসাদুজ্জামান রিপন বলেন, এখন বিএনপির কোনো কর্মসূচি নেই। বিএনপি দল পুনর্গঠনের কাজ করছে। অবরোধ প্রত্যাহারের আনুষ্ঠানিক কোনো ঘোষণা এখনো দেওয়া হয়নি-এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করলে রিপন বলেন, বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া নিজে একাধিক অনুষ্ঠানে বলেছেন, এখন বিএনপির কোনো কর্মসূচি নেই।চলতি বছরের এপ্রিলে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া বলেছিলেন, ২০-দলীয় জোটের সঙ্গে বৈঠক করে তিনি অবরোধ থাকা না থাকার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবেন। যদিও এরপর আগস্টে ২০-দলীয় জোটের বৈঠক অনুষ্ঠিত হলেও সেই বৈঠকে অবরোধ প্রত্যাহারের ব্যাপারে আনুষ্ঠানিক কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। অবরোধ প্রত্যাহার নিয়ে দলটি এখনো পর্যন্ত কোনো ঘোষণাও দেয়নি। মূলত মধ্য এপ্রিল থেকে বিএনপি নেতৃত্বাধীন জোটের এই অবরোধ ও হরতাল কর্মসূচি অকার্যকর হয়ে পড়ে।
এ নিয়ে কথা বলতে চাইলে দলটির নীতি নির্ধারকদের কেউই প্রকাশ্যে মন্তব্য করতে চাননি। কয়েকজন বলেছেন, এ বিষয়টি কেবল দলীয় চেয়ারপারসন পরিষ্কার করতে পারবে।