Print


বিডিনিউজডেস্ক.কম | তারিখঃ ১৬.১০.২০১৫

বিমানযাত্রার জন্য সব সময়ই কিছু প্রস্তুতির প্রয়োজন হয়। অনেকেই প্রথম দিকে ভ্রমণের সময় এ ব্যাপারগুলো জানেন না, ভুল করে বসেন। পরে অবশ্য ঠিক হয়ে যায়। বাস মিস করা আর ফ্লাইট মিস করা তো এক কথা নয়।

এয়ারপোর্টে কেন আগে পৌঁছাতে হয় এবং কতক্ষণ আগে পৌঁছাতে হয়, সে বিষয়ে বেশকিছু পরামর্শ দিয়েছে ইউএসএ টুডে।ইন্টারন্যাশনাল ফ্লাইটের জন্য বেশ আগভাগেই এয়ারপোর্টে পৌঁছাতে হয়, এটাই নিয়ম। এর কারণ নিরাপত্তাজনিত কতগুলো ধাপ আপনাকে পেরুতে হয়। সেই সঙ্গে থাকে টার্মিনাল খুঁজে পাওয়া এবং লাগেজ চেকিংয়ের ঝক্কি। অনেক সময় বিমান কর্তৃপক্ষ আপনাকে জানিয়ে দেবে তাদের নিয়মানুযায়ী কতক্ষণ আগে আপনাকে পৌঁছাতে হবে। আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরগুলোরও নিজস্ব নীতিমালা থাকে, যার মধ্যে ফ্লাইটের কতক্ষণ আগে পৌঁছাতে হবে সেটা বলা থাকে।বিমান ছাড়ার অন্তত ৩০ মিনিট আগে যাত্রীদের ডিপার্চারে থাকার পরামর্শ দেয় বিমান চালনা সংস্থাগুলো।আবার ইন্টারন্যাশনাল ফ্লাইটের ক্ষেত্রে যেহেতু সময় আগে-পিছে হয়, তাই ডেল্টা তাদের যাত্রীদের অন্তত তিন ঘণ্টা আগে এয়ারপোর্টে পৌঁছানোর পরামর্শ দেয়। আর ভার্জিন আমেরিকা পরামর্শ দেয় ফ্লাইট ছাড়ার দুই ঘণ্টা আগে পৌঁছাতে।অবশ্য পিক আওয়ারের ক্ষেত্রে সবাইকেই বেঁধে দেওয়া সময়ের যত আগে পৌঁছানো যায় ততই মঙ্গল বলে জানিয়েছে ইউএসএটুডে। কন্টিনেন্টাল এয়ারলাইনসের ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে, পিক আওয়ার ফ্লাইট ছাড়ার অন্তত আড়াই ঘণ্টা আগে এয়ারপোর্টে পা রাখতে হবে।
ভ্রমণবিষয়ক ওয়েবসাইট সিএন ট্রাভেলার ডটকম বলছে, পথে নানা কারণে আপনার দেরি হতে পারে, দুর্ঘটনা ঘটতে পারে, তাই হাতে যথেষ্ট সময় রেখেই বিমানবন্দরে যান। আগে পৌঁছালেও এয়ারপোর্টে খুব খারাপ সময় কাটবে না আপনার। কারণ সেখানে অনেক কিছুর দোকান রয়েছে, কেনাকাটা করে বা বই পড়ে সময় কাটাতে পারবেন আপনি।সিএন ট্র্যাভেলার সাইটে বলা হয়েছে, ব্যস্ত এবং কম ব্যস্ত এয়ারপোর্টগুলোর মধ্যে সময়ের ফারাক রয়েছে। ব্যস্ত বা আন্তর্জাতিক এয়ারপোর্টগুলোতে ডমিস্টিক ফ্লাইটের জন্য দেড় ঘণ্টা আগে পৌঁছানো উচিত। তবে স্থানীয় আর অপেক্ষাকৃত কম ব্যস্ত এয়ারপোর্টগুলোতে এক ঘণ্টা আগে পৌঁছালেই হবে। আর ইন্টারন্যাশনাল ফ্লাইটের জন্য পৌঁছাতে হবে অন্তত তিন ঘণ্টা আগে।

 


সুত্রঃএনটিভি