Tuesday 6th of December 2016

সদ্য প্রাপ্তঃ

***অনুমোদন পেয়েছে ‘রূপপুর পরমাণু প্রকল্প’* বিশ্ববাজারে জ্বালানি তেলের দাম কমেছে *প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী শাকিল আর নেই(ইন্নালিল্লাহে ওয়া ইন্না ইলাহি রাজিউন)***

Bangladesh Manobadhikar Foundation

Khan Air Travels

UCB Debit Credit Card

নারীর জন্য জরুরি পুষ্টি

বিডিনিউজডেস্ক ডেস্ক | তারিখঃ ১৩.০৫.২০১৬

নারীরা অন্যদের খেয়াল রাখলেও নিজেকে নিয়ে বেশ উদাসীন।

আর এক্ষেত্রে নিজের কোন পুষ্টি উপাদান প্রয়োজন এগুলো প্রায়ই এড়িয়ে যান তারা।স্বাস্থ্যবিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে নারীদের শরীরের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ কিছু পুষ্টি উপাদানের নাম উল্লেখ করা হয়।

ক্যালসিয়াম: নির্দিষ্ট বয়সের পর নারীদের হাড় দুর্বল হতে শুরু করে। বিশেষত বয়স বাড়ার সঙ্গে হাড় ক্ষয় হতে থাকে। তাই মেয়েদের খাবারের তালিকায় পর্যাপ্ত পরিমাণে ক্যালসিয়াম সমৃদ্ধ খাবার থাকা জরুরি। দুধ, দই ইত্যাদি ক্যালসিয়াম সমৃদ্ধ খাবার খাওয়া উচিত।

লৌহ: শরীরে আয়রনের অভাবে অ্যানেমিয়া বা রক্ত শূন্যতার সমস্যা দেখা দেয়। আর মেয়েদের ক্ষেত্রে এ সমস্যা আরও তীব্র। রক্তে আয়রনের অভাবে পর্যাপ্ত পরিমাণে অক্সিজেন সরবরাহ বিঘ্নিত হয়।

ভিটামিন ডি: পর্যাপ্ত পরিমাণে ক্যালসিয়াম গ্রহণের পরও যদি শরীরে ভিটামিন ডি’র অভাব থাকে তবে তা কোনোভাবেই কার্যকর হবে না। তাই পর্যাপ্ত পরিমাণে ভিটামিন ডি সমৃদ্ধ খাবার খেতে হবে। সামৃদ্রিক মাছে প্রচুর পরিমানে ভিটামিন ডি পাওয়া যায়।

ফলিক অ্যাসিড: গর্ভবতী নারীদের জন্য ফলিক অ্যাসিড অত্যন্ত জরুরি। কোষ ভাগ হয়ে নতুন কোষ গঠনে সহায়তা করে ফলিক অ্যাসিড। এর পাশাপাশি প্রয়োজন পর্যাপ্ত বিশ্রাম। সবুজ ও পাতাজাতীয় সবজি, শুঁটি, সিরিয়াল, বাদাম ইত্যাদিতে প্রচুর ফলিক অ্যাসিড পাওয়া যায়।

প্রোটিন: স্বাস্থ্যকর হাড় ও পেশির গঠনের জন্য প্রোটিন জরুরি। পাচন প্রক্রিয়া নিয়ন্ত্রণের পাশাপাশি রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধিতেও সহায়তা করে প্রোটিন। মাংস, মাছ, বাদাম ইত্যাদি খাবারে প্রোটিন পাওয়া যায়। প্রাপ্ত বয়স্ক নারীদের জন্য প্রতিদিন ৪৫ গ্রাম প্রোটিন প্রয়োজন।

ফাইবার বা আঁশ: রক্তের শর্করা এবং কলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণে রাখার পাশাপাশি খাবার হজমেও সহায়তা করে ফাইবার। শাকসবজি, ফল, অপরিশোধিত আটার রুটি, সিরিয়াল, বাদাম, শুঁটি ইত্যাদিতে প্রচুর পরিমাণে আঁশ পাওয়া যায়।

ভিটামিন সি: মজবুত হাড় ও উজ্জ্বল ত্বকের জন্য পর্যাপ্ত পরিমাণে ভিটামিন সি গ্রহণ অত্যন্ত জরুরি। লাল মরিচ, ব্রকলি এবং টকজাতীয় ফলে প্রচুর ভিটামিন সি রয়েছে। নিয়মিত লেবু ও কমলার রস পানে শরীর ভিটামিন সি পাবে।

ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড: চর্বির কথা শুনলেই মনে হতে পারে তা স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। তবে ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড স্বাস্থ্যের জন্য অত্যন্ত উপকারী। হৃদরোগের ঝুঁকি কমাতে সাহায্য করে এই অ্যাসিড। সামুদ্রিক মাছ, আখরোট ইত্যাদি খাবারে প্রচুর ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড পাওয়া যায়।