আজ বুধবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৭

সদ্য প্রাপ্তঃ

*** সৌদি দূতাবাস কর্মকর্তা খালাফ হত্যা মামলায় আপিল বিভাগের রায় ১০ অক্টোবর * বন্যায় টাঙ্গাইলে সেতুর সংযোগ সড়কে ধস; উত্তর ও দক্ষিণাঞ্চলের সঙ্গে ঢাকার রেলযোগাযোগ বন্ধ * রাজারবাগে এক নারী কনস্টেবলকে ধর্ষণের অভিযোগে তার এক সহকর্মী গ্রেপ্তার * কোটালীপাড়ায় হাসিনাকে হত্যাচেষ্টার মামলায় ফায়ারিং স্কোয়াডে ১০ আসামির মৃত্যুদণ্ডের রায় * সৌদি দূতাবাস কর্মকর্তা খালাফ হত্যা মামলায় আপিল বিভাগের রায় ১০ অক্টোবর * বন্যায় টাঙ্গাইলে সেতুর সংযোগ সড়কে ধস; উত্তর ও দক্ষিণাঞ্চলের সঙ্গে ঢাকার রেলযোগাযোগ বন্ধ * রাজারবাগে এক নারী কনস্টেবলকে ধর্ষণের অভিযোগে তার এক সহকর্মী গ্রেপ্তার * কোটালীপাড়ায় হাসিনাকে হত্যাচেষ্টার মামলায় ফায়ারিং স্কোয়াডে ১০ আসামির মৃত্যুদণ্ডের রায়

Bangladesh Manobadhikar Foundation

Khan Air Travels

বিডিনিউজডেস্ক ডেস্ক | তারিখঃ ১১.০৭.২০১৭

সৌদি আরবের কাছে অস্ত্র বিক্রি অব্যাহত রাখার সিদ্ধান্তকে বৈধ বলে রায় দিয়েছেন যুক্তরাজ্যের আদালত।

আজ সোমবার দেশটির হাইকোর্টের দেওয়া রায়ে বলা হয়েছে, জনসমক্ষে জানা তথ্যের পাশাপাশি সরকারের পক্ষ থেকে তুলে ধরা গোপনীয় তথ্যগুলো বিবেচনায় নিয়ে আদালত এমন সিদ্ধান্তে পৌঁছেছেন।

সৌদি আরবের কাছে যুক্তরাজ্য থেকে সামরিক সরঞ্জাম বিক্রি বন্ধ করতে ‘ক্যাম্পেইন অ্যাগেইনস্ট দ্য আর্মস ট্রেড’-এর করা মামলায় আদালত এ রায় দিলেন। মামলাটি ব্রিটিশ পররাষ্ট্রনীতিকে চ্যালেঞ্জ করার একটি বড় ঘটনা বলে বিবেচিত। এ রায়ের বিরুদ্ধে উচ্চতর আদালতে আপিল করার ঘোষণা দিয়েছে সংগঠনটি।

যুক্তরাজ্যে ইসলামিক উগ্রবাদ প্রচারে সৌদি আরবের অর্থায়ন ও সমর্থন নিয়ে চলমান অভিযোগ ও বিতর্কের মধ্যেই আদালত এমন রায় দিলেন। যুক্তরাজ্য বিভিন্ন দেশে ইসলামিক উগ্রবাদী গোষ্ঠীগুলোর বিরুদ্ধে যে লড়াই করছে, সৌদির কেনা অস্ত্র বিভিন্ন হাত ঘুরে ওই সব গোষ্ঠীর কাছে যাচ্ছে বলেও অভিযোগ আছে।

সৌদি আরবের নেতৃত্বে সুন্নি অধ্যুষিত আটটি দেশ ইয়েমেনে নিজেদের পছন্দের সরকার রক্ষায় দেশটিতে হামলায় লিপ্ত। ইয়েমেনের হুতি বিদ্রোহীদের লক্ষ্য করে সৌদি জোটের বিমান হামলায় হাজার হাজার নিরীহ নাগরিক নিহত হয়েছে বলে জাতিসংঘের পক্ষ থেকেই বলা হয়েছে।

যুক্তরাজ্য ও ইউরোপীয় ইউনিয়নের বিদ্যমান আইন অনুযায়ী, কোনো দেশ বা সরকার যদি আন্তর্জাতিক মানবাধিকার আইন লঙ্ঘনের সঙ্গে যুক্ত থাকে, তবে ওই দেশের কাছে অস্ত্র বা সামরিক সরঞ্জাম বিক্রি করা যায় না।

ইয়েমেনে সৌদি হামলায় প্রতিদিন নিরীহ মানুষ মরছে এবং এতে আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘিত হচ্ছে বলে দাবি করে বেশ আগে থেকেই সৌদির কাছে অস্ত্র বিক্রি না করার আহ্বান জানিয়ে আসছে যুক্তরাজ্যের বিভিন্ন যুদ্ধবিরোধী ও মানবাধিকার সংগঠন। শেষ পর্যন্ত সরকারের বিরুদ্ধে আদালতে বেআইনিভাবে সৌদির কাছে অস্ত্র বিক্রি চালিয়ে যাওয়ার অভিযোগ তোলা হয়।

মামলার দুই বিচারক বার্নেট ও হ্যাডন কেইভ বলেন, জাতীয় নিরাপত্তার স্বার্থে প্রকাশ করা হয়নি—এমন কিছু দলিল তাদের সিদ্ধান্তের পক্ষে সহায়ক হয়েছে।

‘ক্যাম্পেইন অ্যাগেইনস্ট আর্মস ট্রেড’-এর অ্যান্ড্রু স্মিথ রায়ে হতাশা প্রকাশ করে বলেন, আপিলে যদি এ রায় বহাল থেকে যায়, তবে তা আন্তর্জাতিক মানবাধিকার আইনের তোয়াক্কা না করা সৌদি আরবের মতো ‘বর্বর’ একনায়কতন্ত্রের কাছে আরও অস্ত্র বিক্রি উৎসাহিত করবে।

বিবিসি অনলাইনের খবরে জানানো হয়, অস্ত্র রপ্তানি বাণিজ্যের কারণে যুক্তরাজ্যে কয়েক হাজার লোকের কর্মসংস্থান টিকে রয়েছে। অস্ত্র রপ্তানি দেশটির অর্থনীতিতে কোটি কোটি পাউন্ডের জোগান দেয়।