আজ মঙ্গলবার, ২৪ অক্টোবর, ২০১৭

সদ্য প্রাপ্তঃ

*** ময়মনসিংহে সুটকেসের ভেতর যুবকের লাশ * ঢাবি অধিভুক্ত ৭ কলেজের মাস্টার্স পরীক্ষা স্থগিত * দিনাজপুরে বজ্রপাতে নিহত ৬ * দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় ছড়িয়ে পড়ছে 'সুপার ম্যালেরিয়া' * রিয়ালের পথের ইতি টানতে চান বেনজেমা * মধ্যবাড্ডায় অগ্নিকাণ্ডে মায়ের মৃত্যু, ২ সন্তান দগ্ধ * পূর্ণাঙ্গ কমিটি নেই: বাড়ছে ক্ষোভ, ঝিমিয়ে পড়া

Bangladesh Manobadhikar Foundation

Khan Air Travels

লাইফস্টাইলডেস্ক ডেস্ক | তারিখঃ ২০.০৯.২০১৭

চাকরিসূত্রে কিংবা ব্যক্তিগত কাজে আজকাল সব জায়গাতেই কম্পিউটার ব্যবহার হচ্ছে।

কেননা, তথ্য-প্রযুক্তির যুগে অফিস-আদালতসহ বাসা-বাড়িতেও খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখে আসছে এই কম্পিউটার। তবে অতিরিক্ত কম্পিউটার ব্যবহারকারীদের বিভিন্ন শারিরীক ও মানসিক জটিলতার সম্মুখীন হতে হচ্ছে। এর কারণ মনিটর থেকে ঠিক দূরত্বে না বসা এবং অতিরিক্ত বা কম আলোতে কাজ করা। তাই কম্পিউটারের পর্দা থেকে কতটা দূরে বসা উচিত বা কতটা আলোয় কাজ করা উচিত আজ রইলো সে বিষয়ে কয়েকটি পরামর্শ-

পর্দা থেকে কতটা দূরত্বে বসবেন

বেশিরভাগ মানুষই কম্পিউটারের পর্দা থেকে ৫০ সেন্টিমিটার দূরত্বে বসে কাজ করে থাকেন৷ কিন্তু এই দূরত্ব ৭৫ সেমি. হলে বেশি ভালো হয়। আর হাই রেজোলিউশন কম্পিউটারের ক্ষেত্রে অবশ্য এই দূরত্ব ১০০ সেন্টিমিটার হলে ভালো হয়৷

আলো নির্বাচন

অনেকেই কম্পিউটারের কাজ করার সময় অভ্যাসবশত ঘরের লাইটটি জ্বালিয়ে রাখেন৷ বাইরে যথেষ্ট আলো থাকলে তো আর ঘরের আলোর প্রয়োজন হয় না৷ তাই নিজেকেই দেখে নিতে হবে কতটা আলো রয়েছে৷ অনেক অফিসেই মাথার ওপরে বিশাল টিউব লাইট থাকে, যাতে অনেকেরই অসুবিধা হয়৷ এক্ষেত্রে টেবিল লাইট ব্যবহার করুন।

ব্যবহার বিশেষে ভিন্ন

সব কিছুই নির্ভর করে কম্পিউটার ব্যবহারকারীর উপর৷ কারণ প্রতিটি মানুষের বসা, স্ক্রিনের দিকে তাকানোর অভ্যাস, স্বভাব ইত্যাদি সবকিছুই আলাদা৷ তাই আলাদাভাবে পরীক্ষা করে দেখতে হবে কে, কীভাবে পর্দার সামনে বসে কাজ করতে আরাম বোধ করেন৷ সঙ্গে যাতে হাত নাড়াচাড়া করার ভালো সুবিধা, যথেষ্ট জায়গা থাকে সেদিকেও লক্ষ্য রাখতে হবে৷ তাছাড়া টেবিল এবং চেয়ারের উচ্চতাও লক্ষ্য রাখা জরুরি৷

মনিটরের ব্যাকগ্রাউন্ড লাইট

মনিটরের পর্দাটি সবসময় পরিষ্কার রাখুন৷ মনিটরের ব্যাকগ্রাউন্ড আলোটি হালকা নীল হলে ভালো৷ তাছাড়া কম্পিউটারে লম্বা টেক্স পড়া বা কম্পোজ করতে গেলে সবচেয়ে ভালো হয় যদি সাদা ব্যাকগ্রাউন্ডের ওপর কালো রং দিয়ে লেখা হয়৷ এতে চোখের ওপর চাপ কম পড়ে৷ প্রয়োজনে অক্ষরের সাইজ বড় করে নেয়া যেতে পারে৷

চোখের ব্যায়াম

কম্পিউটারে কাজ করার সময় একটানা বেশিক্ষন মনিটরের দিকে তাকিয়ে থাকবেন না। মাঝে মাঝে চোখের নজর অন্যদিকে ঘোড়ান। এছাড়া কাজের ফাকে ফাকে চোখে পরিস্কার পানির ঝাপটা দিন। অনেকেরই চোখ জ্বালা করে তখনই এই কাজটা করা উচিত। কাজের সময় চোখের তাপ মাত্রা বৃদ্ধি পেলে এটা করা উচিত।

কাজের ফাকে একটু হাটুন

একটানা বেশিক্ষন কাজ না করে কাজের ফাকে একটু হাটুন। এতে করে চোখ এবং শরিরে প্রশান্তি পাবেন। কারন বসে থাকা অবস্থায় চোখ এবং শরিরের অবস্থান একরকম থাকে আর হাটার সময় অন্যরকম পরিবেশ পায়। তাছাড়া একটানা বেশি সময় ধরে বসে থাকলে শরিরে বিভিন্ন রোগ-ব্যাধির সৃষ্টি হয়।