Print


স্পোর্টস ডেস্ক | তারিখঃ ১৭.১০.২০১৫

স্বাগতিক শ্রীলংকা প্রথম টেস্টে সফরকারী ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ইনিংস ও ৬ রানে হারিয়েছে ।চতুর্থ দিন মধ্যাহ্ন বিরতির পর মাত্র এক ঘন্টা ১৫ মিনিটেই ২২৭ রানে গুটিয়ে যায় সফরকারীরা।

শ্রীলংকা তাদের প্রথম ইনিংসে ৪৮৪ রান করে। জবাবে হেরাথ ৬৮ রানে ৬ উইকেট শিকার করলে সফরকারীরা প্রথম ইনিংসে ২৫১ রানে গুটিয়ে ফলো অনে পড়ে। এরপর দ্বিতীয় ইনংসে ৭৯ রানে ৪ উইকেট শিকার করেন হেরাথ।নিজের ৬৪তম টেস্টে পঞ্চমবার ১০ উইকেট শিকার করেন হেরাথ। আর মাত্র ১১ উইকেট শিকার করতে পারলেই টেস্ট ক্রিকেটে ৩০০ উইকেট শিকার করা তৃতীয় শ্রীলংকান বোলার হবেন তিনি।দুই উইকেটে ৬৭ রান নিয়ে দিন শুরু করা ওয়েস্ট ইন্ডিজ কখনোই স্বাগতিকদের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করে ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি। ম্যাথুজের হাতে ক্যাচ দিয়ে ব্যাক্তিগত ১০ এবং দলীয় ৭৪ রানে মাঠ ছাড়েন নাইটওয়াচম্যান দেবেন্দ্র বিশু। পরের বলেই মারলন স্যামুয়েলসকে এলবিডব্লুর ফাঁদে ফেলেন হেরাথ।মিলিন্তা সিরিবর্দেনের বলে স্লিপে ক্যাচ দিয়ে মাঠ ছাড়েন দিনেশ রামদিন।মধ্যাহ্ন বিরতির আগ পর্যন্ত ৬ উইকেটে ১৫৬ রান করা ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ইনিংস পরাজয়ের হাত থেকে এড়াতে হলে আরো ৭৭ রান করতে হতো। মধ্যাহ্ন বিরতির পর প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে সাজঘরে ফেরেন অধিনায়ক জেসন হোল্ডার। হেরাথের বল ডাউন দ্য উইকেটে মারতে গিয়ে আউট হন তিনি।
স্টাম্পিংয়ের শিকার হন ৫ রান করা কেমার রোচ এবং ম্যাচে ৫ উইকেট শিকার ধাম্মিকা প্রসাদের এলবিডব্লুর শিকার হয়ে মাঠ ত্যাগ করেন জেরোমে টেইলর।ব্ল্যাকউড এবং শ্যানন গাব্রিয়েল শেষ উইকেট জুটিতে ৩৮ রান যোগ করায় মনে হচ্ছিল শ্রীলংকাকে আবারো ব্যাট করতে নামতে হবে। তবে সেঞ্চুরি থেকে মাত্র ৮ রান দূরে থাকতে ব্ল্যাকউড প্রসাদেও শিকার হয়ে মাঠ ত্যাগ করলে থেমে যায় সফরকারীদের ইনিংস।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

শ্রীলংকা প্রথম ইনিংস: ৪৮৪ ( করুনারত্নে ১৮৬,চান্দিমাল ১৫১; ১৪৩/৪)।
ওয়েস্ট ইন্ডিজ প্রথম ইনিংস : ২৫১ ( ড্যারেন ব্রাভো ৫০; হেরাথ ৬৮/৬)
ওয়েস্ট ইন্ডিজ দ্বিতীয় ইনিংস ফলো অন : ২২৭ (ব্ল্যাকউড ৯২ হেরাথ ৭৯/৪)
ম্যাচ সেরা : রঙ্গনা হেরাথ (শ্রীলংকা)
সিরি : দুই ম্যাচ সিরিজে ১-০ ব্যাবধানে এগিয়ে শ্রীলংকা।