Nabodhara Real Estate Ltd.

Khan Air Travels

Premier Bank Ltd

লাইফস্টাইল ডেস্ক | তারিখঃ ১৮.০১.২০১৮

ঘুমিয়ে থাকার সময় আপনার কি প্রায়ই  শত্রুর উপস্থিতি অনুভূত হয়? বুকে চাপ লাগা বা শ্বাসপ্রশ্বাস বন্ধ হয়ে আসতে চায়?

আপনি ঘুম থেকে আতংকে জেগে ওঠেন? উত্তর যদি হ্যা হয়, তবে, জেনে নিন-এর নাম স্লিপ প্যারালাইসিস, বাংলায় যাকে বলা হয় বোবা-য় ধরা। 

বোবায় ধরা কী? 
আমাদের মন দু'ধরনের অবস্থায় বিরাজ করে-চেতন ও অবচেতন। আর অবচেতন মনের বিরূপ একটি ঘটনা স্লিপ প্যারালাইসিস বা বোবায় ধরা। শরীরের পেশী সম্পূর্ণ দুর্বল হয়ে গেলে মানুষ ঘুমের মধ্যে অসাড় হয়ে পড়ে, হার্টবিট কমে যায়, বুকে চাপ অনুভূত হয়। জাগ্রত অবস্থায়ও এধরনের পরিস্থিতি সৃষ্টি হতে পারে। 

তবে, যতই বোবায় ধরুক না কেন কিছু নিয়ম মেনে চললে এই বিদঘুটে অবস্থা থেকে রেহাই পেতে পারেন। যা কিছু করনীয়--

সঠিক সময় খাবার গ্রহণ : 
ঘুমাতে যাওয়ার অন্তত দুই ঘণ্টা পূর্বে খাবার গ্রহণ করতে হবে আপনাকে। এ নিয়ম ব্যাহত হলে শারীরবৃত্তীয় সমস্যা হতে পারে যার বিরূপ প্রভাব পড়বে মনের ওপর। এর ফলে  স্লিপ প্যারালাইসিস বা  বোবা-য় ধরা-এ আক্রান্ত হতে পারেন আপনি। 

ঘুমের অনিয়ম পরিহার :
ঘুমের অনিয়ম হলে কিংবা নিয়মিত ঘুমানোর অভ্যাস না থাকলে স্লিপ প্যারালাইসিস-র সম্ভাবনা বৃদ্ধি পায়। বেড়ে যায়। তাই, অনিদ্রা পরিহার করতে হবে। চিত কিংবা উপুড় হয়ে না শুয়ে কাত হয়ে শোওয়া উত্তম।

মানসিক চাপ বর্জন :

মানসিক চাপজনিত কারণে এই সমস্যা হতে পারে। তাই, অবশ্যই দুশ্চিন্তা পরিহার করতে হবে। এর ফলে, শুধু স্লিপ প্যারালাইসিস নয় আরো অনেক জটিল সমস্যা থেকে রেহাই পাবেন আপনি। 
 
স্লিপিং পিল পরিহার :

স্লিপিং পিল বা ঘুমের ওষুধ বোবায় ধরা'র অন্যতম কারণ। তাই  স্লিপিং পিল পরিহার করতে হবে।  আর ঘন-ঘন বোবায় ধরা'য় আক্রান্ত হলে ডাক্তারের পরামর্শ নিতে ভুলবেন না যেন।