Print
বিভাগঃ রাজনীতি

আ.লীগের কাউন্সিলে এবার গরুর মাংস বর্জন

বিডিনিউজডেস্ক ডেস্ক | তারিখঃ ০৪.০৫.২০১৬

আওয়ামী লীগের জাতীয় কাউন্সিলে সাধারণত গরুর মাংস পোলাও প্যাকেট বিতরণ করা হলেও এবার এই আইটেম বাদ দেয়া হচ্ছে।

এবার মোরগপোলাও দিয়ে কাউন্সিলর, ডেলিগেট ও অতিথিদের আপ্যায়ন করা হবে।সংখ্যালঘু ধর্মাবলম্বীদের কথা বিবেচনায় এমন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন সম্মেলনের খাদ্য-উপপরিষদের আহ্বায়ক মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া।
 
মঙ্গলবার রাজধানীর ধানমন্ডি প্রিয়াংকা কমিউনিটি সেন্টারে দলের ২০তম এ জাতীয় সম্মেলন নিয়ে খাদ্য-উপপরিষদের সভায় তিনি এ কথা জানান।গত ২০ মার্চ গণভবনে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির বৈঠকে ১০ ও ১১ জুলাই সম্মেলনের তারিখ নির্ধারণ করা হয়।মায়া বলেন,  সারা দেশ থেকে প্রায় ৩০ হাজার কাউন্সিলর, ডেলিগেট এবং অতিথিরা আসবেন। যেহেতু দুই দিনব্যাপী কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হবে, এ কারণে দুই দিনই দুপুরে খাওয়ার ব্যবস্থা থাকবে। সেটা আমরা আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে পরামর্শ করে তার নির্দেশনা মোতাবেকই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করব। কাউন্সিলে সংখ্যালঘু বা অন্য ধর্মাবলম্বীদের কথা বিবেচনা করে এবার গরুর মাংস বাদ দিয়ে মুরগির মাংস দিয়ে বিরিয়ানির প্যাকেট করা হবে। সাথে সালাদসহ পানির বোতল এবং সফট ড্রিংকসের ব্যবস্থা থাকবে। কাউন্সিলের দুই দিনই একই মেন্যুতে অতিথি আপ্যায়ন হবে। এটা আমাদের প্রাথমিক সিদ্ধান্ত।তিনি আরো বলেন, কমিটির গুরুদায়িত্ব অনুসারে খাদ্য-উপ পরিষদে প্রায় এক হাজার সদস্য অন্তর্ভুক্ত করা হবে। কেবল একশো সদস্য অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। এই কমিটিতে সাংগঠনিক পদাধিকার বলে ঢাকা মহানগরীর দলীয় সংসদ সদস্য, থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদকরা সদস্য হিসেবে গণ্য হবেন। এছাড়াও মহানগরীর সহযোগী ও ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকরাও এই কমিটিতে অন্তর্ভুক্ত হবেন।

কমিটির আহ্বায়ক মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়ার সভাপতিত্বে সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন- খাদ্যমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম, আব্দুছ ছাত্তার, হাবিবুর রহমান সিরাজ, অ্যাডভোকেট মমতাজ উদ্দিন মেহেদী, এস. এম কামাল হোসেন, নাঈমুর রহমান দুর্জয়, মুকুল চৌধুরী, শাহে আলম মুরাদ, সাদেক খান, ইঞ্জি.সবুর, রবিউল আলম বুদু, আসলামুল হক আসলাম ও কামাল আহমেদ মজুমদার।