Bangladesh Manobadhikar Foundation

Khan Air Travels

Premier Bank Ltd

সাত অভ্যাস আপনাকে করবে ভাগ্যবান

লাইফস্টাইল ডেস্ক  | তারিখঃ ২৫.০৯.২০১৫

ভালো কিংবা মন্দ ভাগ্য রয়েছে কি না, তা নিয়ে অনেকেই দ্বীধায় থাকেন।

যদিও নিজের পরিশ্রমের মাধ্যমেই ভাগ্যকে গড়ে তোলা যায়। এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে বিজনেস ইনসাইডার।
১. সংবাদ পড়ুন, দেখুন
সংবাদপত্রে সংবাদ পড়া কিংবা টিভির সংবাদ দেখার মাধ্যমে সব খবরাখবর রাখা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়। চলমান ঘটনাপ্রবাহের খবর রাখা প্রত্যেকের জন্যই গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। এতে যে কোনো বিষয় সম্পর্কে আপনার জ্ঞান বাড়বে, যা পরবর্তীতে নানা বিষয়ে আপনার বিশ্লেষণী ক্ষমতা বাড়াবে।
২. আশপাশের খবর রাখুন
আপনার আশপাশের চলমান সব বিষয় সম্পর্কে জেনে রাখুন। একটু ‘চোখ-কান খোলা’ রাখলেই এটি করা সম্ভব। আশপাশের সবকিছুর খবর না রাখলে আপনার পক্ষে অনেকের কথাবার্তা যেমন অনুধাবন করা সম্ভব হবে না তেমন কোনো বিরূপ পরিস্থিতি থেকে উত্তরণও সম্ভব হবে না।
৩. তাড়াতাড়ি ঘুম থেকে উঠুন
প্রতিদিন সকালে তাড়াতাড়ি ঘুম থেকে ওঠা হতে পারে আপনার অত্যন্ত ভালো অভ্যাসের একটি। এ অভ্যাসের কারণে আপনি বহু সুবিধা পাবেন। এসব সুবিধার কোনো কোনোটি আপনার ভাগ্যকেও পাল্টে দিতে পারে, যা আপনি ভাবতেও পারবেন না।
৪. প্রতিদিন শারীরিক অনুশীলন
শারীরিক অনুশীলন বা ব্যায়াম সুস্থ দেহের জন্য অতি প্রয়োজনীয়। এটি বহু রোগ থেকে আপনাকে দূরে রাখতে সহায়ক। এছাড়া সুস্থ দেহ ও মন আপনার বহু কাজ ভালোভাবে সম্পন্ন করতে সহায়তা করবে। এতে আপনার ভাগ্য খুলে যেতে পারে।
৫. খোলা মন
যে কোনো বিষয় গ্রহণ করার মতো খোলা মনের অধিকারীরা বহু সুবিধা পান। এসব সুবিধার মধ্যে রয়েছে কোনো সমস্যা সহজেই সমাধানের ক্ষমতা। অন্যদিকে খোলা মন যাদের নেই তারা সহজেই কোনো বিষয় মেনে নিতে পারেন না এবং নানা ঝামেলা সৃষ্টি করেন।
৬. আর্থিক বিষয় গুছিয়ে রাখুন
ইতস্তত বিনিয়োগ কিংবা আর্থিক বিষয়গুলো অগোছালো করে রাখা মোটেই ভালো অভ্যাস নয়। এসব বিষয়ে উন্নতি করার জন্য ইতস্তত বিনিয়োগ বাদ দিন। সব বিনিয়োগ গুছিয়ে রাখুন। আর্থিক বিষয়গুলো একটি নির্দিষ্ট কাঠামোর মধ্যে রাখুন।
৭. ইতিবাচক বিষয়গুলো ভাবুন
নেতিবাচকতা মানুষের কত ক্ষতি করতে পারে তা অনেকের ধারণাতেও থাকে না। যেসব মানুষ সারাক্ষণ নেতিবাচক চিন্তাভাবনা করেন তারা শুধু নিজের নয় আশপাশের ব্যক্তিদেরও ক্ষতি করেন। তাই নেতিবাচক বিষয়গুলো বাদ দিয়ে ইতিবাচক বিষয়গুলো নিয়ে চিন্তা করা উচিত।