Print

আ. লীগের সাবেক এমপির পুত্রবধূ গুলিতে নিহত

বিডিনিউজডেস্ক.কম | তারিখঃ ০৮.১০.২০১৫

খুলনা-৪ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য আওয়ামী লীগ নেতা মোল্লা জালাল উদ্দিনের পুত্রবধূ রাব্বি সুলতানা লিপির (৩২) গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

বুধবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে খুলনা মহানগরের পুলিশ লাইন ইস্ট লেনে নিজ বাস ভবনে জালালের ভাতিজার হাতে থাকা শটগানের গুলিতে এই মৃত্যুর ঘটনা ঘটে।

ঘটনার পর থেকে মোল্লা জালাল উদ্দিনের ভাতিজা হেদায়েত পলাতক রয়েছেন। ঘটনার সময় খুলনা জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি মোল্লা জালাল উদ্দিন বাড়িতেই উপস্থিত ছিলেন। মৃত্যুর ব্যাপারে তিনি ও তাঁর বাড়ির কেউ সাংবাদিকদের সঙ্গে কোনো কথা বলছেন না।

খুলনা মহানগর পুলিশের উপকমিশনার জাহাঙ্গীর হোসেন ঘটনাস্থলে সাংবাদিকদের জানান, সাবেক এমপি মোল্লা জালাল উদ্দিন তাঁদের জানিয়েছেন, তাঁর স্ত্রীকে নিয়ে  ছেলে হেলাল উদ্দিন (নিহত গৃহবধূর স্বামী) হজ পালনের জন্য সৌদি আরবে গেছেন। তাঁরা এখনো ফিরেননি। আজ রাত সাড়ে ৮টার দিকে তাঁর লাইসেন্স করা শটগান নিয়ে নাড়াচাড়া করছিলেন ভাতিজা হেদায়েত। ওই সময় একটি গুলি বের হয়ে তাঁর পুত্রবধূ লিপির মাথায় বিদ্ধ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই পুত্রবধূর মৃত্যু হয়।

ঘটনার পর পুলিশ আসার আগেই হেদায়েত পালিয়ে যান।

নিহত গৃহবধূর একটি মাত্র সন্তান রয়েছে। তার নাম রাফসান।

মোল্লা জালাল উদ্দিনের বাড়িতে গিয়ে দেখা যায়, ঘরের খাটের ওপর হেলান দেওয়া অবস্থায় পড়ে আছে লিপির মরদেহ। মুখ ছিল ওড়না দিয়ে ঢাকা। দেয়ালে রক্তের দাগ। ঘরের মেঝেতে পড়ে আছে একটি শটগান। মনে হচ্ছে, খাটে বসে থাকা অবস্থায় লিপি গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যান।