Nabodhara Real Estate Ltd.

Khan Air Travels

Premier Bank Ltd

ভার্চুয়াল ও বাস্তব ফুটবলে তারকাদের হাল

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক | তারিখঃ ২৮.০৭.২০১৮

বাস্তব দুনিয়ায় ফিফা বিশ্বকাপ যতটা জনপ্রিয়, ভার্চুয়াল গেইমের দুনিয়ায়ও অনেক এগিয়ে।

ফিফা ২০১৮ গেইমে সক্ষমতার ভিত্তিতে সেরা খেলোয়াড়দের তালিকা আছে। সদ্য শেষ হওয়া বিশ্বকাপে সেসব তারকার পাঁচজন কেমন খেলেছেন, গেইমের অবস্থানের সঙ্গে বিশ্বকাপে তাঁদের সক্ষমতার ফারাক কী, তা নিয়ে লিখেছেন তুসিন আহম্মেদ ও সামীউর রহমান

ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো
ফিফা ২০১৮ গেইমে ফুটবলারদের মধ্যে শীর্ষস্থানে আছেন পর্তুগিজ ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। প্রফাইলে স্কিল মুভস ও উইক ফুটে রেটিং তাঁর যথাক্রমে ৫ ও ৪। আক্রমণে শক্তিধর হলেও রক্ষণভাগে কিছুটা দুর্বল। চ্যাম্পিয়নস লিগে টানা পঞ্চমবারের মতো সর্বোচ্চ গোলদাতা।

বিশ্বকাপে
বিশ্বকাপে বেশিদূর যেতে পারেনি রোনালদোর পর্তুগাল। উরুগুয়ের কাছে হেরে দ্বিতীয় রাউন্ডেই বিদায়। ৪ ম্যাচে ৪ গোল,  হ্যাটট্রিক আছে স্পেনের বিপক্ষে। খেলেছেন ৩৬০ মিনিট। ছিল ২১ বার গোলের প্রচেষ্টা। আছেন বিশ্বকাপের সেরা একাদশে।

লিওনেল মেসি
ফিফা ২০১৮ গেইমে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছেন আর্জেন্টিনার তারকা লিওনেল মেসি। প্রফাইলে স্কিল মুভস ও উইক ফুটে রেটিং ৪। আক্রমণ ও রক্ষণভাগে মাঝারি। বার্সেলোনার হয়ে ৫০০ গোলের মাইলফলক ছোঁয়ার পাশাপাশি জিতে নেন চতুর্থ ইউরোপিয়ান গোল্ডেন শু।

বিশ্বকাপে
এবারের বিশ্বকাপের মেসির অবস্থা ভালো নয়, দল হিসেবেও আর্জেন্টিনা বেজায় খারাপ। ৪ ম্যাচে ৩৬০ মিনিট খেলে করেছেন ১টি গোল।  ২০১টি পাস দেওয়ার পাশাপাশি হলুদ কার্ড পান একটি। বিশ্বকাপের সেরা একাদশে জায়গা হয়নি মেসির।

নেইমার
ফিফা ২০১৮ গেইমে নেইমারের গেইমের প্রফাইলে স্কিল মুভস ও উইক ফুটে রেটিং ৫। আক্রমণ লেভেল হাই ও রক্ষণভাগে মাঝারি। ৫২০টি প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচে মাঠে নেমেছেন। গোল করেছেন ৩২১টি। ফিফা গেইমে তৃতীয় স্থানে রয়েছেন তিনি।

বিশ্বকাপে
বিশ্বকাপে সুবিধা করতে পারেননি নেইমার। সমালোচনা হয়েছে তাঁর নাটুকেপনারও। ৫ ম্যাচ খেলে ২টি গোল করেন। গোটা আসরে সবচেয়ে বেশি গোলের প্রচেষ্টা তাঁরই। কিন্তু দুর্ভাগ্য, বেশির ভাগই গেছে বিফলে! একটি হলুদ কার্ডও পান।

সুয়ারেস
ফিফা ২০১৮ গেইমে ফিফা ২০১৮ গেইমে চতুর্থ স্থানে রয়েছেন উরুগুইয়ান লুই সুয়ারেস। তাঁর স্কিল মুভস ও উইক ফুট রেটিং ৪। আক্রমণে শক্তিধর, তবে রক্ষণভাগে মাঝারি।

বিশ্বকাপে
বিশ্বকাপে আছেন ১৫ নম্বরে। ৫ ম্যাচ খেলে করেছেন ২ গোল। পুরো বিশ্বকাপে খেলেছেন ৪৫০ মিনিট। এই সময়ের গোল করার জন্য ১৪ বার চেষ্টা চালিয়েছেন সুয়ারেস। ১৩০টি পাস দেন। কোনো হলুদ কার্ড পাননি।

এডেন হ্যাজার্ড
ফিফা ২০১৮ গেইমে অষ্টম স্থানে রয়েছেন বেলজিয়ামের তারকা এডেন হ্যাজার্ড। প্রফাইলে স্কিল মুভস ও উইক ফুট রেটিং ৪। আক্রমণের ক্ষেত্রে তিনি পাওয়ারফুল ও রক্ষণভাগে মাঝারি।

বিশ্বকাপে
পেয়েছেন বিশ্বকাপের সিলভার বল। চারটি ম্যাচ খেলে ২টি গোল করেন। পুরো বিশ্বকাপে ৩৩৮ মিনিট খেলেছেন। এই সময়ের গোল করার জন্য ১৩ বার গোলের প্রচেষ্টা করেন। ১৫৭টি পাস দেন। কোনো হলুদ কার্ড পাননি।