আজ বুধবার, ২৪ মে, ২০১৭

সদ্য প্রাপ্তঃ

*** যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টকে সফরের আমন্ত্রণ বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর * সাত দফা দাবিতে উত্তরবঙ্গে পণ্যবাহী যানবাহনের ধর্মঘট আরও ২৪ ঘণ্টা বাড়ছে * যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলায় বাস্তুহারা লীগের এক নেতাকে কুপিয়ে হত্যা, একজন আটক * সিনেটের ৩৫ জন শিক্ষক প্রতিনিধি নির্বাচনে ভোট দিচ্ছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকরা * সুন্দরবনে মধু সংগ্রহ করতে গিয়ে বাঘের থাবায় মৌয়ালের মৃত্যু * সৌদি আরবে শেখ হাসিনা ও ডোনাল্ড ট্রাম্পের মধ্যে শুভেচ্ছা বিনিময়

Bangladesh Manobadhikar Foundation

Khan Air Travels

সরকারে কাজ করতে চান জাকারবার্গ

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক | তারিখঃ ০৮.০১.২০১৭

মার্ক জাকারবার্গ নাকি সম্প্রতি প্রযুক্তি কম্পানির সিইও এর চেয়ে বরং অনেক বেশি একজন রাষ্ট্রীয় কর্তাব্যক্তির মতো আচরণ করছেন।

২০১৭ সালে এই ফেসবুক প্রতিষ্ঠাতার ব্যক্তিগত লক্ষ্য হলো যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে সফর করা এবং দেশটির প্রতিটি অঙ্গরাজ্যের লোকের সঙ্গে কথা বলা।

তার এই কর্মসুচিকে অনেকটা একটি রাজনৈতিক প্রচারণা অভিযানের মতোই মনে হচ্ছে।
সম্প্রতি তিনি স্বীকার করেছেন, তিনি আর নাস্তিক নেই। এবং তিনি ধর্মকে “খুবই গুরুত্বপূর্ণ” একটি বিষয় হিসেবে দেখেন।
২০১৬ সালের শুরুর দিকে তিনি ফেসবুকের বোর্ডকে একটি প্রস্তাব পাস করতে বলেন। ঐ প্রস্তাবে বলা হয় তিনি যদি ফেসবুক ছেড়ে দুই বছরের জন্যও সরকারি দায়িত্ব পালনে যান তখনও কম্পানির ভোটিং কন্ট্রোল তার হাতেই থাকবে।
এছাড়া সরকারি দায়িত্ব পালনে মার্ক জাকারবার্গের আগ্রহের বিষয়টি ফেসবুক সিওও শেরিল স্যান্ডবার্গের একটি ইমেইলেও প্রকাশিত হয়। ২০১৫ সালের আগস্টে হিলারির প্রচারণা চেয়ারম্যান জন পডেস্টাকে ইমেইলটি করেন শেরিল।
উইকিলিকস ওই ইমেইলটি ফাঁস করে। এতে শেরিল স্যান্ডবার্গ জন পডেস্টাকে জাকারবার্গের সঙ্গে দেখা করতে বলেন। এতে শেরিল আরো বলেন, জাকারবার্গ লোকের সঙ্গে সাক্ষাৎ করছেন তার বিশ্বপ্রেম এবং সামাজিক তৎপরতার পরবর্তী পদক্ষেপ সম্পর্কে শেখার জন্য।
সে বছরেরই শেষদিকে জাকারবার্গ তার দাতব্য তহবিল চ্যান জাকারবার্গ ইনিশিয়েটিভ গঠনের ঘোষণা দেন।