Nabodhara Real Estate Ltd.

Khan Air Travels

Premier Bank Ltd

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক | তারিখঃ ১৭.০১.২০১৮

 

এবার অজানা হ্যাকাররা ছিনিয়ে নিল ডিজিটাল ওয়ালেট প্রভাইডার ব্ল্যাকওয়ালেট-এর প্রায় ৪ লাখ ডলার সমমূল্যের ক্রিপ্টোকারেন্সি।

গণমাধ্যম সিএনএন জানাচ্ছে, অজানা একটি হ্যাকার দল ব্ল্যাকওয়ালেট-এর সার্ভার হ্যাক করে এবং লুটে নেয় উপরি-উক্ত মূল্যের ভার্চুয়াল মুদ্রা।

সিএনএন-এর ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, একটি বিবৃতির মাধ্যমে হ্যাকিংয়ের ঘটনাটি স্বীকার করেছে ব্ল্যাকওয়ালেট।

রিপোর্টে আরো বলা হয়, একজন হ্যাকার তার হোস্টিং প্রভাইডার অ্যাকাউন্ট দিয়ে ব্ল্যাকওয়ালেট-এর সার্ভারে অনুপ্রবেশের সুযোগ পায়। এরপর সে 'ডিএনএস' সেটিংস পরিবর্তন করে ব্ল্যাকওয়ালেট-এর সার্ভারকে তার আয়ত্তে নিয়ে আসে। এরপর সেই হ্যাকার একটি জটিল ও কষ্টসাধ্য প্রক্রিয়া সম্পন্নের মাধ্যমে প্রায় চার লাখ ডলার সমমূল্যের ক্রিপ্টোকারেন্সি তার অ্যাকাউন্টে ট্রান্সফার করে নেয়। এভাবেই সম্পন্ন হয় ওই লুটের ঘটনা।

এ ঘটনা টের পেয়ে ব্ল্যাকওয়ালেট তাদের ব্যবহারকারীদের সতর্ক করার চেষ্টা করে। কিন্তু ততক্ষণে যা ক্ষতি হবার, হয়ে গেছে। যারা ওই নির্দেশনা না পড়েই ঢুকে পড়ে মার্কেটপ্লেসে ভার্চুয়াল লেনদেনে, তারা পয়সা (ক্রিপ্টোকারেন্সি) খোয়ায়।

উল্লেখ্য, হ্যাকাররা ব্রিট্রেক্স নামে একটি ভার্চুয়াল কারেন্সি এক্সচেঞ্জ-এর মাধ্যমে তাদের লুটের অর্থ সরিয়ে নেয়। এরপর সেটিকে তার আরো একটি ডিজিটাল কারেন্সিতে পরিবর্তিত করে নেয়। এর ফলে তাদের অপকর্মের কোনো নিশানা আর অবশিষ্ট থাকে না।

গত মাসে এর চেয়েও বড় একটি হ্যাকিংয়ের ঘটনা ঘটে। সে ঘটনায় ৬০ মিলিয়ন ডলার সমমূল্যের বিটকয়েন (৪৭৩৬.৪২) খোয়ায় স্লোভেনিয়ান ক্রিপ্টোকারেন্সি মাইনিং মার্কেট নাইসহ্যাশ। এই ঘটনায় ওই ডিজিটাল ওয়ালেট প্রভাইডারের সিইও পদত্যাগ করেন।