Nabodhara Real Estate Ltd.

Khan Air Travels

Premier Bank Ltd

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক | তারিখঃ ২২.০১.২০১৮

ডিজাইনিং দ্য ফিউচার স্লোগান নিয়ে আগামী ২২-২৫ ফেব্রুয়ারি চার দিনব্যাপী বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে (বিআইসিসি) শুরু হতে যাচ্ছে

দেশের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি খাতের জনপ্রিয় প্রদর্শনী ‘বেসিস সফটএক্সপো ২০১৮’। এ লক্ষ্যে সোমবার দুপুরে রাজধানীর কারওয়ান বাজারস্থ বেসিস আডিটোরিয়ামে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বেসিস সভাপতি সৈয়দ আলমাস কবীর, সহ-সভাপতি ফারহানা এ রহমান, বেসিস সফটএক্সপোর আহ্বায়ক ও বেসিস পরিচালক মোস্তাফিজুর রহমান সোহেল, পরিচালক রিয়াদ এস এ হুসেন।

বেসিস সফটএক্সপো ২০১৮ প্রসঙ্গে বেসিসের সভাপতি সৈয়দ আলমাস কবীর বলেন, ‘দেশের সফটওয়্যার প্রতিষ্ঠানগুলোর সম্প্রসারণে এই এক্সপোর আয়োজন করা হয়েছে। এতে প্রায় দুইশো প্রতিষ্ঠান অংশ নেবে। দেশের সফটওয়্যারের নিজস্ব চাহিদা পূরণে সক্ষমতা প্রদর্শন ও আস্থা তৈরিই এ প্রদর্শনীর লক্ষ্য।'

বেসিস সভাপতি বলেন, ‘বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস (বেসিস) আয়োজিত তথ্যপ্রযুক্তির বৃহত্তম প্রদর্শনী সফট এক্সপোতে এবার প্রায় দুইশো দেশি-বিদেশি তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানের জন্য পণ্য ও সেবা প্রদর্শনের সুযোগ থাকছে।’

বেসিস সফটএক্সপো ২০১৮'র আহ্বায়ক বেসিস পরিচালক মোস্তাফিজুর রহমান সোহেল বলেন, ‌‌‘বেসিস সফটএক্সপোর মাধ্যমে দেশীয় আইটি প্রতিষ্ঠানসমূহ নিজেদের সেবা আন্তর্জাতিক পরিমন্ডলে তুলে ধরার সুযোগ পাচ্ছেন, পাশাপাশি বেসিস স্টুডেন্ট ফোরামের সদস্যরা নিজেদের উদ্ভাবনী প্রকল্পগুলো তুলে ধরার পাশাপাশি তথ্য-প্রযুক্তি খাতের অগ্রগতি সম্পর্কে জানতে পারছে।’

বেসিস পরিচালক বলেন, ‘প্রদর্শনী এলাকাকে পাঁচটি ভাগে ভাগ করা হয়েছে। রয়েছে সফটওয়্যার সেবা প্রদর্শনী জোন, উদ্ভাবনী মোবাইল সেবা জোন, ডিজিটাল কমার্স জোন, আইটিইএস ও বিপিও জোন এবং ক্লাউড কম্পিউটিং জোন।’

তিনি বলেন, আয়োজনে থাকবে ৩০টিরও বেশি তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি-বিষয়ক সেমিনার, যেখানে বক্তব্য দেবেন এক শতাধিক দেশি-বিদেশি তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞ।’

পরিচালক দেলোয়ার হোসেন ফারুক বলেন, ‘ আয়োজনে দেশি-বিদেশি ব্যবসায়ীদের জন্যে থাকছে বি-ট-ুবি ম্যাচমেকিং সেশন। যার মাধ্যমে ব্যবসায়ীরা নিজেদের ব্যবসার প্রসার খুব সহজেই করতে পারবেন। পাশাপাশি থাকবে আইটি জব ফেয়ার জোন, যেখান থেকে দেশি-বিদেশি তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলোতে কাজের সুযোগ থাকছে।’