Print

বিডিনিউজডেস্ক.কম    
তারিখঃ ১৪.০৫.২০১৫   

পটুয়াখালীতে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়েছেন। গুরুতর আহত জেলা ছাত্রলীগের সহসভাপতি রিভাত হাসান সজীব ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রতন চন্দ্র দাসকে পটুয়াখালী ২৫০ শয্যা হাসপাতালে তর্তি করা হয়েছে। গতকাল দুপুরে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় জেলা আওয়ামী লীগ অফিসের চেয়ার, টেবিলসহ অন্য আসবাবপত্র ভাঙচুর করা হয়।

সূত্র জানায়, দীর্ঘদিন ধরে জেলা ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠিত না হওয়ায় সভাপতি নাসির হাওলাদার ও সাধারণ সম্পাদক রাশেদ খানের সঙ্গে বিরোধ চলে আসছিল। এমতাবস্থায় গতকাল বেলা ১১টায় তাদের সমর্থকদের নিয়ে জেলা আওয়ামী লীগ অফিসে এক সভায় মিলিত হয়। সংবাদ পেয়ে সভাপতি নাসির ও সাধারণ সম্পাদক রাশেদ খানের সমর্থকরা দুপুর ১২টায় রামদা, চাপাতিসহ ধারালো অস্ত্র নিয়ে সভাস্থলে হামলা চালায়। এতে তারাসহ তাদের ১০ সমর্থক আহত হন। তবে হামলার সঙ্গে তিনি অথবা তাদের কোন সমর্থক জড়িত নন বলে দাবি করেন জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি নাসির হাওলাদার।

তিনি জানান, ওই সভা সম্পর্কে তিনি ও সাধারণ সম্পাদক কিছুই জানেন না। তাই সেখানে তারা অথবা তাদের কোন সমর্থক উপস্থিত ছিল না। এমতাবস্থায় তাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ এনেছে। আসলে তারা ছাত্রলীগের কেউ নয়। তারা দলের ভেতরে অনুপ্রবেশকারী।