আজ বুধবার, ২৬ জুলাই, ২০১৭

সদ্য প্রাপ্তঃ

*** বনানীতে দুই তরুণীকে ধর্ষণের মামলায় আপন জুয়েলার্সের মালিকের ছেলে সাফাতসহ পাঁচজনের বিচার শুরু * ভিয়েতনাম থেকে ২০ হাজার মেট্রিক টন চালের প্রথম চালান নিয়ে বন্দরে ভিড়েছে জাহাজ * লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছের সঙ্গে সংঘর্ষে চালক নিহত * তিন দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে ঢাকায় পৌঁছেছেন শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট মাইথ্রিপালা সিরিসেনা * সীতাকুণ্ডে নয় শিশুর মৃত্যু ও ৪৬ জনের অসুস্থতার কারণ এখনও শনাক্ত করা যায়নি * চিকিৎসকরা বলছেন, ত্রিপুরা পাড়ার অসুস্থ শিশুরা মারাত্মক অপুষ্টিতে ভুগছে * ৫৬ ইউনিয়ন পরিষদ এবং একটি করে পৌরসভা ও জেলা পরিষদের কয়েকটি ওয়ার্ডে ভোট চলছে * চট্টগ্রামে ইয়াবা ও চোলাই মদসহ পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করেছে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর * দুর্নীতির দায়ে ব্রাজিলের সাবেক প্রেসিডেন্ট লুলার সাড়ে নয় বছরের কারাদণ্ড

Bangladesh Manobadhikar Foundation

Khan Air Travels

বাজেটে ডিএসইর ছয় দাবি পেশ

বিডিনিউজডেস্ক ডেস্ক | তারিখঃ ০৮.০৫.২০১৬ 

পুঁজিবাজার উন্নয়নে আগামী ২০১৬-১৭ অর্থবছরের বাজেটে ছয় দফা দাবি জানিয়েছে দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই)।

রোববার দুপুরে মতিঝিলের নিজস্ব কার্যালয় এক সংবাদ সম্মেলনে ডিএসই এ দাবি জানায়। জাতীয় রাজস্ব বোর্ডে (এনবিআর) প্রাক বাজেট আলোচনায় প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে দাবিগুলো দেয়া হয়েছে।প্রস্তাবে বলা হয়, ২০১৬-১৭ অর্থবছরের বাজেটে পুঁজিবাজারে অবকাঠামোগত বিনিয়োগ সক্ষমতা বাড়াতে স্টক এক্সচেঞ্জের মালিকানা ও ব্যবস্থাপনা পৃথককরণ (ডিমিউচ্যুয়ালাইজেশন) বাস্তবায়নের পরবর্তী পাঁচ বছর শতভাগ কর অবকাশ সুবিধা চায় ডিএসই।ডিমিউচুয়ালাইজেশন পরবর্তী স্টক এক্সচেঞ্জকে গত অর্থবছরে ৫ বছর মেয়াদি ক্রমহ্রাসমান হারে কর অবকাশ সুবিধা দেয় সরকার। সেই হিসেবে চলতি বছরে ২০ শতাংশ কর দিতে হবে দুই স্টক এক্সচেঞ্জকে। তাই আগের বছরের মতো এবার ডিএসই বাজেট প্রস্তাবনায় আগামী ৫ বছর স্টক এক্সচেঞ্জকে কর মুক্ত রাখার সুযোগ চায় প্রতিষ্ঠানটি।এদিকে বর্তমানে করমুক্ত লভ্যাংশের সীমা ২৫ হাজার টাকা রয়েছে। আগামী বাজেটে (২০১৬-১৭) তা এক লাখ টাকা করার দাবি করেছে ডিএসই। এতে শেয়ারবাজারে বিনিয়োগ করতে আগ্রহ বাড়বে বিনিয়োগকারীদের। যা বাজার স্থিতিশীলতায় সহায়ক ভূমিকা পালন করবে বলে মনে করছেন তারা।বর্তমানে স্টেকহোল্ডারদের শেয়ার লেনদেনের ওপর দশমিক শূন্য ৫ শতাংশ হারে উৎসে কর দিতে হয়। তা কমিয়ে দশমিক শূন্য ১৫ শতাংশ করার প্রস্তাব করা হয়েছে।