মুদ্রণ

পদ্মার পাড়ে হয়েছে সচিবদের বৈঠক
জাতীয় ডেস্ক | তারিখঃ ১৭.১০.২০১৫

মুন্সিগঞ্জের লৌহজং উপজেলায় মাওয়ায় পদ্মাসেতু প্রকল্প এলাকায় আজ শনিবার সচিবদের বৈঠক হয়েছে।

সচিবালয়ের বাইরে এ ধরনের সভা এই প্রথম বলে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ সূত্র জানায়।বেলা পৌনে ১১টার দিকে মাওয়ায় পদ্মা সেতু প্রকল্পের সার্ভিস এরিয়া-১ এর সভাকক্ষে বৈঠকটি হয়। এতে ৫৮ জন সচিব উপস্থিত ছিলেন। মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ মোশাররাফ হোসাইন ভূইঞা এতে সভাপতিত্ব করেন।বেলা একটার দিকে বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ মোশাররাফ হোসাইন ভূইঞা সাংবাদিককের বলেন, পদ্মাসেতুর কাজ ও অগ্রগতি নিয়েই বিশেষ এই সভায় আলোচনা হয়েছে। পদ্মা সেতুর কাজ দ্রুত ও নির্দিষ্ট সময়ে কীভাবে সম্পন্ন করা যায় সে নিয়ে আলোচনা হয়েছে।বৈঠক শেষে মোশাররাফ হোসাইন ভূইঞার নেতৃত্বে সচিবরা মাওয়ায় পদ্মাসেতুর প্রকল্প এলাকায় নির্মাণকাজ ঘুরে দেখেন। মধ্যাহ্নভোজ শেষে তাঁরা ঢাকায় ফিরে যাবেন।পদ্মা সেতুর মূল পাইলিং (ভিত্তি) ও নদীশাসনের কাজ আগামী ডিসেম্বরে শুরু হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এর উদ্বোধন করবেন। দিন-তারিখ এখনো ঠিক হয়নি।মুন্সিগঞ্জের মাওয়া ও শরীয়তপুরের জাজিরার মধ্যে ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ পদ্মা সেতু নির্মাণে কাজ চলছে। সরকার ২০১৮ সালের মধ্যে সেতু নির্মাণের ঘোষণা দিয়েছে। সেতুর ওপর দিয়ে যানবাহন চলবে। নিচে থাকবে রেললাইন। যানবাহন চলাচলের পথ হবে চার লেনের, ২২ মিটার চওড়া। দুই পারে ঢাকা থেকে যশোর পর্যন্ত ১৬০ কিলোমিটার রেললাইন নির্মাণে সম্ভাব্যতা যাচাই, নকশা প্রণয়ন, জমি অধিগ্রহণের কাজ চলছে।রেলওয়ে সূত্র জানিয়েছে, পুরো প্রকল্প এখনই বাস্তবায়ন করা সম্ভব নয়। তবে সেতু চালু হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে যাতে মুন্সিগঞ্জের মাওয়া ও ফরিদপুরের ভাঙ্গার মধ্যে রেলসংযোগ চালু করা যায়, সেই লক্ষ্যে প্রকল্প নেওয়া হয়েছে।