মুদ্রণ

বরিশাল থেকে ১৫ রুটের বাস চলাচল বন্ধ

বিডিনিউজডেস্ক.কম | তারিখঃ ২১.০৬.২০১৮ 

দুই বাস মালিক সমিতির দ্বন্দ্বে বরিশাল থেকে দক্ষিণাঞ্চলের ১৫টি রুটে বাস চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

বরিশাল নগরের রুপাতলী বাস টার্মিনাল থেকে বৃহস্পতিবার (২১ জুন) বেলা ১১টা থেকে বাস চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়। এতে বরিশাল থেকে সরাসরি ঝালকাঠি, পটুয়াখালী, বাউফল, বরগুনা, কুয়াকাটা, ভাণ্ডারিয়া, পিরোজপুর, পাথরঘাটাসহ ১৫টি রুটে বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে।

রুপাতলীর বাস-মিনিবাস, কোচ-মাইক্রোবাস শ্রমিক ইউনিয়নের যুগ্ম সম্পাদক শহিদুল ইসলাম টিটু জানান, দীর্ঘদিন ধরে বন্ধ থাকার পর গত ১৩ জুন বরিশাল থেকে ঝালকাঠি রুটে সরাসরি বাস চলাচল শুরু হয়। কিন্তু আজ সকাল থেকে (২১ জুন) ঝালকাঠি জেলা বাস মালিক সমিতি তাদের বাস বরিশাল থেকে সরিয়ে নেয়। পরে তারা বরিশাল নগরের রুপাতলী বাসস্ট্যান্ড থেকে প্রায় তিন কিলোমিটার দূরে কালিজিরা ব্রিজের ওপারে নিজেদের নিয়ন্ত্রিত রায়াপুরা এলাকায় অস্থায়ী বাস টার্মিনাল থেকে তারা যাত্রী পরিবহন শুরু করে।

অপরদিকে সকালে বরিশাল মালিক সমিতির বাস ঝালকাঠির উদ্দেশ্যে ছাড়া হলে রায়াপুর নামক স্থানে তা আটকে দেওয়া হয়। পরে প্রশাসনের সহায়তায় বাস সেখান থেকে ছাড়িয়ে ঝালকাঠির উদ্দেশ্যে পাঠানো হয়। কিন্তু ঝালকাঠি বাসস্ট্যান্ডে বরিশালের বাস গেলে গাড়ি ভাংচুর ও স্টাফদের মারধর করার অভিযোগ মেলে। এ অবস্থায় বেলা ১১টা থেকে বরিশালের রুপাতলী বাসস্ট্যান্ড থেকে বাস মালিক ও শ্রমিক নেতারা দক্ষিণাঞ্চলের ১৫টি রুটে বাস চলাচল বন্ধ করে দেন।

বরিশাল-পটুয়াখালী মিনিবাস সমিতির সাধারাণ সম্পাদক কাওসার হোসেন শিপন বলেন, দীর্ঘদিন ধরে ঝালকাঠির সড়ক হয়ে দক্ষিণের ৬টি রুটে সরাসরি বাস চলাচল বন্ধ ছিল। বিভাগীয় প্রশাসনের হস্তক্ষেপে ঈদের আগে তা স্বাভাবিক হলেও আজ সকাল থেকে আবারও বাস চলাচল বন্ধ করে ঝালকাঠি বাস মালিক সমিতি। সকালে তারা আমাদের বাস ভাংচুর ও স্টাফদের মারধর করলে রুপাতলী থেকে সব রুটের বাস চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়। সমিতির যুগ্ম সম্পাদক নাছির উদ্দিন জানান, বরিশাল কুয়াকাটা রুটে ঝালকাঠি জেলার নলছিটি উপজেলাধীন আট কিলোমিটার রাস্তা রয়েছে। দীর্ঘদিন ধরে এ সড়ক দিয়ে বরিশাল, বরগুনা, পটুয়াখালীর মালিক সমিতি তাদের বাস চালালেও ঝালকাঠির কোনো বাস চলাচল করতে দেওয়া হচ্ছে না।
তিনি আরও বলেন, বিভাগীয় প্রশাসনের হস্তক্ষেপে বারবার বাস চলাচল স্বাভাবিক করা হলেও বরিশাল মালিক সমিতির কারণে তা প্রতিবারই বন্ধ হয়ে যায়। ওদের আল্টিমেটাম অনুযায়ী আজ সকালে (২১ জুন) বরিশাল থেকে আবারও ঝালকাঠি ও ঝালকাঠি হয়ে অন্যান্য রুটে বাস চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। ফলে বরিশালের বাস ঝালকাঠিতে প্রবেশ করতে পারছে না।

উল্লেখ্য রুটের ন্যায্য ভাগ নিয়ে বরিশাল বাস মালিক সমিতির সঙ্গে ঝালকাঠি বাস মালিক সমিতির দ্বন্দ্ব দেখা দিলে গত ৩ জানুয়ারি বরিশাল থেকে ঝালকাঠি, পিরোজপুর, খুলনার বেশ কয়েকটি রুটে সরাসরি বাস চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। ফলে ঝালকাঠি বাস মালিক সমিতির কোনো বাস বরিশালে প্রবেশ করতো না এবং বরিশালের রুপাতলীস্থ বরিশাল-পটুয়াখালী মিনিবাস সমিতির কোনো বাস ঝালকাঠিতে যেতে পারতো না।