Bangladesh Manobadhikar Foundation

Khan Air Travels

Premier Bank Ltd

জাতীয় ডেস্ক | তারিখঃ ০৪.০৮.২০১৫

জীবন মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে চলছে লড়াই।

মাতৃজঠরে গুলিবিদ্ধ হলেও প্রাণস্ফুরণ থামেনি শিশুপ্রাণের। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্চাকেন্দ্রে চিকিৎসা চলছে তার। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, শিশুটির অবস্থা উন্নতির দিকে হলেও এখনো শঙ্কামুক্ত নয়। মঙ্গলবার সকালে শিশুটিকে দেখতে গিয়ে  মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী বলেন, অভিযুক্ত যেই হোক ব্যবস্থা নেয়া হবে। এদিকে এ ঘটনায় আটক মাগুরা জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি সুমন সেনসহ ৩ জনের বিরুদ্ধে রিমান্ড আবেদন করেছে পুলিশ। গত ২৩ জুলাই মাগুরায় রাজনৈতিক সংঘর্ষে এভাবেই গুলিবিদ্ধ হয় মাতৃগর্ভে থাকা শিশুটি। চিকিৎসার জন্য প্রথমে শিশু এবং পরে মাকে নিয়ে আসা হয় ঢাকা মেডিকেলে কলেজে। ডাক্তারদের নিবিড় তত্ত্বাবধানে চলছে শিশুটির চিকিৎসা। ঢাকা মেডিকেলে এসে গুলিবিদ্ধ শিশুকে দেখে তার মায়ের সাথে কথা বলেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী। পরে সাংবাদিকদের তিনি বলেন, এঘটনায় জড়িতরা যে দলেরই হোক তাদের কোন ছাড় দেয়া হবে না। ডাক্তার বলেছে, শিশুটির ইনফেকশন ঝুঁকি এড়াতে যথাসাধ্য চেষ্টা করছেন তারা। তবে নিদির্ষ্ট সময়ের আগে জন্মগ্রহণ করায় রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কম শিশুটির, তাই এখনো নিশ্চিত করে কিছু বলা সম্ভব নয় বলে জানিয়েছেন তারা। এদিকে নবজাতক গুলিবিদ্ধের মামলার আসামী মাগুরা জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি সুমনের ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করে পুলিশ। ৯ ই আগস্ট দিন ধার্য করে অপর দুই আসামীসহ তাদের জেল হাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেয় আদালত।