আজ শুক্রবার, ২১ জুলাই, ২০১৭

সদ্য প্রাপ্তঃ

*** বনানীতে দুই তরুণীকে ধর্ষণের মামলায় আপন জুয়েলার্সের মালিকের ছেলে সাফাতসহ পাঁচজনের বিচার শুরু * ভিয়েতনাম থেকে ২০ হাজার মেট্রিক টন চালের প্রথম চালান নিয়ে বন্দরে ভিড়েছে জাহাজ * লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছের সঙ্গে সংঘর্ষে চালক নিহত * তিন দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে ঢাকায় পৌঁছেছেন শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট মাইথ্রিপালা সিরিসেনা * সীতাকুণ্ডে নয় শিশুর মৃত্যু ও ৪৬ জনের অসুস্থতার কারণ এখনও শনাক্ত করা যায়নি * চিকিৎসকরা বলছেন, ত্রিপুরা পাড়ার অসুস্থ শিশুরা মারাত্মক অপুষ্টিতে ভুগছে * ৫৬ ইউনিয়ন পরিষদ এবং একটি করে পৌরসভা ও জেলা পরিষদের কয়েকটি ওয়ার্ডে ভোট চলছে * চট্টগ্রামে ইয়াবা ও চোলাই মদসহ পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করেছে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর * দুর্নীতির দায়ে ব্রাজিলের সাবেক প্রেসিডেন্ট লুলার সাড়ে নয় বছরের কারাদণ্ড

Bangladesh Manobadhikar Foundation

Khan Air Travels

ঝালকাঠিতে হত্যার দায়ে তিন ভাইয়ের যাবজ্জীবন

বিডিনিউজডেস্ক ডেস্ক | তারিখঃ ২৬.০৪.২০১৬

ঝালকাঠি সদর উপজেলার বিনয়কাঠি ইউনিয়নের মকরমপুর গ্রামের লেবুচাষি আবদুস সালামকে হত্যার দায়ে তিন ভাইকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত।

একই সঙ্গে তিনজনকে ৫০ হাজার টাকা করে জরিমানা, অনাদায়ে আরো এক বছরের কারাদণ্ডাদেশ দেওয়া হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার দুপুরে জেলা ও দায়রা জজ মো. শফিকুল করিম আসামিদের উপস্থিতিতে এ দণ্ডাদেশ দেন।

দণ্ডাদেশপ্রাপ্তরা হলেন মকরমপুর গ্রামের আবদুল গনি হাওলাদারের তিন ছেলে আলমগীর হোসেন হাওলাদার, কালাম হাওলাদার ও মিরন হাওলাদার। অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় আদালত আবদুল গনি হাওলাদার ও তাঁর অপর দুই ছেলে জলিল হাওলাদার ও মিলন হাওলাদারকে খালাস দিয়েছেন।

রায় ঘোষণার সময় রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন জেলা ও দায়রা জজ আদালতের কৌঁসুলি আবদুল মান্নান রসুল। আসামিপক্ষে মামলা পরিচালনা করেন আবদুর রশিদ শিকদার।

মামলার বিবরণ থেকে জানা যায়, মকরমপুর গ্রামের আবদুস সালাম বিদেশ থেকে দেশে ফিরে লেবু চাষ শুরু করেন। তাঁর বাগান থেকে লেবু চুরি করে নেয় প্রতিবেশী আবদুল গনির ছেলেরা। ২০০৯ সালের ১৬ জুন বিকেলে লেবু চুরির বিষয়ে তাঁদের কাছে জানতে চান আবদুস সালাম। ওই সময় আবদুল গনির ছেলেরা আবদুস সালামকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে হত্যা করেন।

এ ঘটনায় নিহতের ভাতিজা মো. শিপন বাদী হয়ে ঝালকাঠি থানায় হত্যা মামলা করেন। পুলিশ তদন্ত শেষে আবদুল গনি হাওলাদার ও তাঁর পাঁচ ছেলের নামে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করে।

আদালত দীর্ঘ সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আজ তিন ভাইকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দেন।