মুদ্রণ

ঐশীসহ তিনজনের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিলেন ম্যাজিস্ট্রেট

বিডিনিউজডেস্ক.কম | তারিখঃ ১৬.০৯.২০১৫

পুলিশ কর্মকর্তা মাহফুজুর রহমান ও তাঁর স্ত্রী স্বপ্না রহমান হত্যা মামলায় মেয়ে ঐশী রহমানসহ তিনজনের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিয়েছেন ম্যাজিস্ট্রেট আনোয়ার সাদাত।

আজ বুধবার ঢাকার ৩ নম্বর দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক সাঈদ আহমেদের আদালতে ম্যাজিস্ট্রেট আনোয়ার সাদাত হাজির হয়ে এ সাক্ষ্য দেন। ম্যাজিস্ট্রেট আনোয়ার সাদাত ঐশী, কাজের মেয়ে সুমি, রনি, জনির ফৌজদারি কার্যবিধির ১৬৪ ধারা মোতাবেক স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি গ্রহণ করেছিলেন। সংশ্লিষ্ট আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর মাহবুবুর রহমানের সহকারী আইনজীবী ফয়সাল ভূইয়া অনি এ বিষয়ে এনটিভি অনলাইনকে নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানিয়েছেন, আজ ম্যাজিস্ট্রেটের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে বিচারক আগামী ১ অক্টোবর পরবর্তী সাক্ষ্য গ্রহণের জন্য দিন নির্ধারণ করেন। ম্যাজিস্ট্রেট আনোয়ার সাদাত বর্তমানে কুমিল্লায় জ্যেষ্ঠ সহকারী জজ হিসেবে কর্মরত রয়েছেন। ফয়সাল ভূইয়া অনি আরো জানান, আজকের সাক্ষী নিয়ে এ মামলায় ৩৭ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে।

এদিকে আজ সাক্ষ্যগ্রহণ উপলক্ষে মামলার অন্যতম আসামি ঐশী ও ঐশীর বন্ধু আসাদুজ্জামান জনিকে আদালতে হাজির করা হয়। আরেক আসামি মিজানুর রহমান রনি জামিনে হাজির ছিলেন। ২০১৪ সালের ৯ মার্চ ঐশীকে প্রধান আসামি করে আরো দুজনের বিরুদ্ধে ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিমের আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের পরিদর্শক আবুল খায়ের। পরে গত বছরের ৩০ নভেম্বর ঢাকার ৩ নম্বর দ্রুতবিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক এ বি এম সাজেদুর রহমান তাঁদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন। ২০১৩ সালের ১৬ আগস্ট রাজধানীর মালিবাগের চামেলীবাগে নিজেদের বাসা থেকে পুলিশের স্পেশাল ব্রাঞ্চের (রাজনৈতিক শাখা) পরিদর্শক মাহফুজুর রহমান ও তাঁর স্ত্রী স্বপ্না রহমানের ক্ষতবিক্ষত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।  এ ঘটনায় ১৭ আগস্ট নিহত মাহফুজুর রহমানের ছোট ভাই মো. মশিউর রহমান রুবেল পল্টন থানায় একটি হত্যা মামলা করেন।