Print

বন্ধু হত্যার দায়ে যুবকের ফাঁসি

বিডিনিউজডেস্ক ডেস্ক | তারিখঃ ২১.০৪.২০১৬

চট্টগ্রামে বন্ধু হত্যার দায়ে এক যুবককে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার চট্টগ্রামের মহানগর দায়রা জজ মো. শাহে এ রায় ঘোষণা করেন।দণ্ডপ্রাপ্ত মো. জাহেদ মাহমুদ নগরীর বাগমনিরাম এলাকার সেলিম মাহমুদের ছেলে।মহানগর আদালতের পিপি মো. ফখরুদ্দীন জানান, একটি ল্যাপটপ নিয়ে বিরোধের জের ধরে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র কফিল উদ্দিনকে হত্যার দায়ে তার বন্ধু জাহেদ মাহমুদকে (২৭) ফাঁসির রায় দিয়েছেন আদালত। আসামিকে ১০ হাজার টাকা অর্থদণ্ডও দেয়া হয়েছে।২০১১ সালের ১৮ ডিসেম্বর নগরীর জমিয়াতুল ফালাহ মসজিদের পাশের পাহাড়ে খুন হন ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার বিজ্ঞান বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র কফিল উদ্দিন। পরদিন পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে।ওই ঘটনার কয়েকদিন পর কফিলের ঘনিষ্ঠ বন্ধু জাহেদ মাহমুদকে গ্রেফতার করে নগর গোয়েন্দা পুলিশ। পরের বছর ৩ মে জাহেদের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দেন তদন্ত কর্মকর্তা।পুলিশি তদন্তে জানা যায়, একটি ল্যাপটপ ও কিছু টাকার জন্য সহপাঠী কফিল উদ্দিনকে খুন করেন জাহেদ মাহমুদ। নিহত কফিল হাটহাজারীর বাসিন্দা। নগরীর ব্যাটারি গলিতে তার বাসা।পরবর্তীতে জাহেদ মাহমুদ আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিলে পুলিশ ২০১২ সালের ৩ মে অভিযোগপত্র দেয়। ২১ জন সাক্ষীর মধ্যে ১১ জন সাক্ষীর বক্তব্য শুনে আদালত আসামির উপস্থিতিতে আদালত বৃহস্পতিবার রায় ঘোষণা করেন।