Print

কুমিল্লায় খালেদা জিয়ার নামে মানহানি মামলা ছাত্রলীগ নেতার

বিডিনিউজডেস্ক ডেস্ক | তারিখঃ ০৩.০৫.২০১৬

প্রধানমন্ত্রীর ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয়কে নিয়ে মন্তব্য করায় বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার নামে কুমিল্লার আদালতে এক কোটি টাকার মানহানি মামলা দায়ের করা হয়েছে। 

আজ মঙ্গলবার মুরাদনগর উপজেলা ছাত্রলীগের সহসম্পাদক মো. শরিফুল আলম চৌধুরী এ মামলা করেন।

মামলাটি আমলে নিয়ে আগামী ২ জুনের মধ্যে কুমিল্লা জেলা তথ্য কর্মকর্তাকে তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের জন্য নির্দেশ দিয়েছেন সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ফাহাদ বিন আমীন চৌধুরী। বাদীপক্ষের আইনজীবী এস টি আহমেদ ফয়সাল বিষয়টি সাংবাদিকদের জানিয়েছেন।

গত ১ মে রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আয়োজিত সমাবেশে খালেদা জিয়া বলেন, ‘সাংবাদিক শফিক রেহমানকে সাংবাদিক পরিচয়ে ভোরবেলা ধরে নিয়ে যাওয়া হলো। তিনি রাজনীতি করেন না। আমাদের সঙ্গে মাঝেমধ্যে যোগাযোগ রাখতেন। শফিক রেহমানের দোষ কী? আজকে স্বঘোষিত প্রধানমন্ত্রীর ছেলে ৩০০ মিলিয়ন ডলার বিদেশে নিয়ে গেছেন। এর কাগজপত্রই তিনি সংগ্রহ করেছেন। সাংবাদিক হিসেবে তিনি এটা করতেই পারেন। তিনি কিন্তু কোথাও সেটা প্রচার করেননি, লেখেননি। সেই কাগজ তাঁরা নিয়ে গেছেন। শফিক রেহমানকে ধরা না হলে এই কথা আপনারা জানতে পারতেন না। তাঁরা মনে করেন, কাগজগুলো নিয়ে গেলেই বোধ হয় শেষ। কিন্তু না, এই কাগজ শুধু বাংলাদেশে না, আরো অনেক জায়গায় আছে। এটা আর চাপা দেওয়া যাবে না।’

বাদী অভিযোগ করেছেন, গত ১ মে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বিএনপির জনসমাবেশে খালেদা জিয়া বলেন, যুক্তরাষ্ট্রে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয়ের ৩০০ মিলিয়ন ডলার জমা আছে। ওই বক্তব্য তাৎক্ষণিকভাবে ইন্টারনেট, অনলাইন সংবাদমাধ্যম ও বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ায় ছাত্রলীগের মুরাদনগর উপজেলা শাখার সহসম্পাদক ও মামলার বাদী শরিফুল আলম চৌধুরীর স্থানীয়ভাবে ব্যাপক মানহানি হয়েছে। এর ফলে তাঁকে আনুমানিক এক কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতির সম্মুখীন হতে হয়েছে।