Print

জোড়াতালির সেতুতে ঝুঁকি নিয়ে চলাচল

বিডিনিউজডেস্ক ডেস্ক | তারিখঃ ০৯.০৫.২০১৬

কুমিল্লার তিতাস উপজেলার শিবপুর গ্রামের খালের ওপর নির্মিত বেইলি সেতুটি জোড়াতালি দিয়ে যানবাহন চলাচলের উপযোগী রাখা হয়েছে।

সেতুর পাটাতন ভেঙে নষ্ট হয়ে যাওয়ায় এর ওপর দিয়ে ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করতে হচ্ছে।  সড়ক ও জনপথ (সওজ) বিভাগের কুমিল্লা কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, কুমিল্লার তিতাস, হোমনা এবং ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুরসহ কয়েকটি উপজেলার মধ্যে সড়ক যোগাযোগ সহজ করার জন্য ১৯৯০ সালে শিবপুর খালের ওপর সেতুটি নির্মাণ করা হয়। এর দৈর্ঘ্যে ৩০ মিটার ও প্রস্থ ১০ দশমিক ২৫ মিটার। ওপরের পাটাতন ভেঙে যাওয়ায় সেতুটি ইতিমধ্যে ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে। সেতুটির ওপর ভারী যানবাহন উঠলে দুই পাশ দিয়ে হাঁটার তেমন রাস্তা থাকে না।

তিতাসের কড়িকান্দি গ্রামের অটোরিকশাচালক আল আমিন বলেন, ঢাকা-হোমনা ও কুমিল্লা-হোমনা পথের শতাধিক বাস এবং বাঞ্ছারামপুর, তিতাস ও হোমনা উপজেলার কয়েক শ অটোরিকশা এবং মালবাহী ট্রাক এ সড়ক দিয়েই প্রতিদিন চলাচল করে। সেতুতে ওঠার পর প্রায়ই ভাঙা স্থানে চাকা আটকে যায়।  কড়িকান্দির ব্যবসায়ী মুন্সী সামছুদ্দিন আহমেদ বলেন, সেতুর ওপর দিয়ে সহস্রাধিক ব্যক্তিগত গাড়ি ও ট্রাকও চলাচল করে। ভারী যানবাহন চলাচল করায় লোহার পাটাতন নষ্ট হয়ে গেছে। সাময়িক ব্যবস্থা হিসেবে সওজ ভেঙে যাওয়া পাটাতন মাঝেমধ্যে লোহার পাত দিয়ে মেরামত করে।  এ বিষয়ে সওজ কুমিল্লা কার্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী প্রকৌশলী (উপবিভাগীয় প্রকৌশলী) মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, গোমতী নদীর ওপর সেতু নির্মাণের পাইলিংয়ের কাজ শেষ হলে এখানে একটি পাকা সেতু নির্মাণের কাজ শুরু হবে।