Print

টুঙ্গিপাড়ায় কাউন্সিলর গ্রেপ্তার, পাল্টাপাল্টি ধাওয়া

বিডিনিউজডেস্ক ডেস্ক | ১১.০৪.২০১৬

গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় এক পৌর কাউন্সিলরকে গ্রেপ্তারের প্রতিবাদে আজ সোমবার সকালে বিক্ষোভ করেছে এলাকাবাসী।

এ সময় পুলিশের সঙ্গে তাদের ধাওয়া-পাল্টাধাওয়ার ঘটনা ঘটে। উত্তেজিত জনতা ইট-পাটকেল ছুড়ে পুলিশের গাড়ির কাচ ভাঙচুর করে।

টুঙ্গিপাড়া থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মোজাহিদ জানান, গতকাল রোববার রাতে পৌরসভার ৫ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর নুরুল ইসলামকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এর প্রতিবাদে আজ সোমবার সকাল ৯টার দিকে বিক্ষোভ মিছিল বের করে এলাকাবাসী। তারা মিছিল নিয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) বাসভবনের ফটকে যায়। সেখানে তারা কাউন্সিলরের নিঃশর্ত ‍মুক্তির দাবি জানায়। সে সময় ইউএনও মো. সফি উল্লাহ বিষয়টি সমাধানের আশ্বাস দেন।

তবে সেখানে পুলিশ আসতে দেখে শত শত নারী-পুরুষ উত্তেজিত হয়ে পড়ে এবং পুলিশকে ধাওয়া দেয়। এ সময় পুলিশের সঙ্গে এলাকাবাসীর পাল্টাপাল্টি ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। পরে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে পুলিশ।

টুঙ্গিপাড়া পৌরসভার খানসাহেব শেখ মোশারেফ হোসেন স্কুল অ্যান্ড কলেজে হামলার ঘটনায় প্রধান শিক্ষক আকরামুজ্জামান ৫০ জনকে আসামি করে স্কুলে হামলা ও ভাঙচুরের অভিযোগ এনে একটি মামলা করেন। ওই মামলার প্রধান আসামি ওয়ার্ড কাউন্সিলর নুরুল ইসলাম।

গত বুধবার খানসাহেব শেখ মোশারেফ হোসেন স্কুল অ্যান্ড কলেজের অষ্টম শ্রেণির ক্লাস ক্যাপ্টেন পাটগাতি গ্রামের সোহাগ ফকির ও টুঙ্গিপাড়া গ্রামের নাঈম মৃধার কথাকাটাকাটি ও হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। গত শনিবার এ নিয়ে ওই দুই গ্রামের লোকজন সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এতে ১০ জন আহত হয়েছিল। এ সময় ওই স্কুলে হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে।