Print


বিডিনিউজডেস্ক.কম | তারিখঃ ২৫.০৮.২০১৫

রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকের কর্মকর্তারা আর ইচ্ছে করলেই ব্যাংকের টাকায় বিদেশ যেতে পারবেন না।

এখন থেকে বিদেশে যাওয়ার কারণ ও ব্যাংকের কী উপকার হবে তাও জানাতে হবে।রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকগুলোকে এ বিষয়ে একটি নির্দেশনা দিয়েছে অর্থ মন্ত্রণালয়। সোমবার ২৪ আগস্ট নির্দেশনাটি ব্যাংকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তাদের কাছে পাঠানো হয়েছে। অর্থ মন্ত্রণালয়ের ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের একটি সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
নির্দেশনায় বলা হয়েছে, রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকের কর্মকর্তাদের বিদেশ ভ্রমণে আগের নিয়ম-কানুনের সঙ্গে নতুন করে আরও একটি নির্দেশনা প্রদান করা হলো। কোনো কর্মকর্তা চাইলেই প্রশিক্ষণের জন্য বিদেশ ভ্রমণ করতে পারবেন না। প্রশিক্ষণের জন্য বিদেশ যেতে হলে ব্যাংকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ছাড়াও ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের অনুমতি নিতে হবে।
এতে আরও বলা হয়েছে, প্রশিক্ষণের জন্য বিদেশ যাওয়ার অনুমতির জন্য আগের নির্ধারিত ফরমের সঙ্গে নতুন আরও একটি ফরমে উল্লেখ করতে হবে প্রশিক্ষণের কারণ, প্রশিক্ষণ ব্যাংকের কতটুকু গ্রহণযোগ্য, ব্যবসার প্রসারে কতটা ব্যবহৃত হবে ইত্যাদি।অর্থ মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা যায়, রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকের কর্মকর্তারা প্রশিক্ষণের নামে লাখ লাখ টাকা খরচ করে বিদেশ ভ্রমণ করেন বলে অভিযোগ রয়েছে। আবার সেসব প্রশিক্ষণ নিয়ে ব্যাংকেরও কোনো উপকার হচ্ছে না।এবার এসব বিষয় অর্থ মন্ত্রণালয়ের নজরে এসেছে। তাই সরকারি অর্থের অপচয় রোধে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। অবিলম্বে এ নির্দেশনা কার্যকর করার নির্দেশ দিয়েছে মন্ত্রণালয়।