Bangladesh Manobadhikar Foundation

Khan Air Travels

Premier Bank Ltd

এবারো বেসরকারি মেডিকেল কলেজে শিক্ষার্থী সংকটের আশঙ্কা

বিডিনিউজডেস্ক.কম | তারিখঃ ২৭.০৮.২০১৫

চলতি বছর এমবিবিএস-বিডিএস কোর্সে ভর্তি হতে লিখিত পরীক্ষায় ১০০ নম্বরের মধ্যে কমপক্ষে ৪০ পেতে হবে।

এতে করে বেসরকারি মেডিকেল কলেজে শিক্ষার্থী সংকটের আশঙ্কা করছেন সংশ্লিষ্টরা। পাস নম্বর বাড়ানোয় গত ২০১৪-১৫ শিক্ষাবর্ষে এমবিবিএস কোর্সে ভর্তির জন্য যোগ্য শিক্ষার্থী পায়নি বেসরকারি মেডিকেল কলেজগুলো। ওই বছর রাজধানীর কলেজগুলো কিছু শিক্ষার্থী পেলেও ঢাকার বাইরে আসন ফাঁকা রেখেই ভর্তি প্রক্রিয়া শেষ হয়। স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় এবং স্বাস্থ্য অধিদফতর সূত্রে জানা গেছে, চলতি ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষে এমবিবিএস ও বিডিএস কোর্সে অনলাইনে ভর্তি আবেদন শুরু হয়েছে গত ১৯ আগস্ট। আবেদনের শেষ তারিখ ১ সেপ্টেম্বর রাত ১১টা ৫৯ মিনিট। অনলাইনে টাকা জমা দেয়ার শেষ তারিখ ২ সেপ্টেম্বর রাত ১১টা ৫৯ মিনিট। ১৪ থেকে ১৭ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত প্রবেশপত্র বিতরণ করা হবে। আর ভর্তি পরীক্ষা ১৮ সেপ্টেম্বর সকাল ১০টা থেকে ১১টা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে। এসএসসি ও এইচএসসি দুটি মিলিয়ে কমপক্ষে জিপিএ-৮ পেয়েছে সেসব শিক্ষার্থী এ বছর তারা ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিতে পারবেন। তবে এসএসসি ও এইচএসসির কোনো একটিতে জিপিএ-৩.৫-এর কম হলে সেই শিক্ষার্থী আবেদন করতে পারবেন না। উপজাতি ও পার্বত্য জেলার অ-উপজাতি শিক্ষার্থী যাদের জিপিএ-৭ আছে তারা পরীক্ষায় বসতে পারবেন। তবে কোনোটিতে জিপিএ-৩-এর নিচে থাকলে সেই শিক্ষার্থী পরীক্ষা দিতে পারবেন না। লিখিত পরীক্ষায় প্রতিটি ভুল উত্তরের জন্য দশমিক ২৫ নম্বর কাটা হবে, দ্বিতীয়বার যারা পরীক্ষা দিচ্ছেন তাদের পাঁচ নম্বর কাটা যাবে। দেশে ২৯টি সরকারি মেডিকেল কলেজে ৩ হাজার ১৬২ আসন এবং ৯টি ডেন্টাল কলেজে আসন সংখ্যা ৫৩২টি। আর ৬৬টি বেসরকারি মেডিকেল কলেজে আসন সংখ্যা ৫ হাজার ৩২৫টি এবং ডেন্টাল কলেজে এক হাজার ২৮০টি আসন আছে। গত বছর এমবিবিএস ও বিডিএস মিলিয়ে ভর্তি পরীক্ষায় ২২ হাজার ৭৫৯ শিক্ষার্থী পাস করেন। এসএসসি ও এইচএসসিতে পাওয়া জিপিএর ভিত্তিতে ১০০ আর ভর্তি পরীক্ষায় ১০০ নম্বর নির্ধারণ করা হয়। ওই বছর থেকে মেডিকেলে ভর্তির জন্য পাস নম্বর ২০ থেকে বাড়িয়ে ৪০ করা হয়। পাশাপাশি ভর্তি ফি ১৩ লাখ ৯০ হাজার টাকা নির্ধারণ করে দেয় সরকার। বেসরকারি মেডিকেল কলেজ মালিকদের সংগঠন বাংলাদেশ প্রাইভেট মেডিকেল কলেজ অ্যাসোসিয়েশন (বিপিএমসিএ) জানিয়েছে, গত শিক্ষাবর্ষে বেসরকারি মেডিকেল কলেজগুলোতে অর্ধেক আসন শূন্য ছিল। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের নির্ধারিত নম্বর পেয়ে ভর্তি পরীক্ষায় পাস করতে না পারায় অনেক শিক্ষার্থী ভর্তি হতে পারেননি। ফলে সারাদেশের মেডিকেল কলেজে শিক্ষার্থীর তীব্র সংকট দেখা দেয়