আজ বৃহস্পতিবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৭

সদ্য প্রাপ্তঃ

*** সৌদি দূতাবাস কর্মকর্তা খালাফ হত্যা মামলায় আপিল বিভাগের রায় ১০ অক্টোবর * বন্যায় টাঙ্গাইলে সেতুর সংযোগ সড়কে ধস; উত্তর ও দক্ষিণাঞ্চলের সঙ্গে ঢাকার রেলযোগাযোগ বন্ধ * রাজারবাগে এক নারী কনস্টেবলকে ধর্ষণের অভিযোগে তার এক সহকর্মী গ্রেপ্তার * কোটালীপাড়ায় হাসিনাকে হত্যাচেষ্টার মামলায় ফায়ারিং স্কোয়াডে ১০ আসামির মৃত্যুদণ্ডের রায় * সৌদি দূতাবাস কর্মকর্তা খালাফ হত্যা মামলায় আপিল বিভাগের রায় ১০ অক্টোবর * বন্যায় টাঙ্গাইলে সেতুর সংযোগ সড়কে ধস; উত্তর ও দক্ষিণাঞ্চলের সঙ্গে ঢাকার রেলযোগাযোগ বন্ধ * রাজারবাগে এক নারী কনস্টেবলকে ধর্ষণের অভিযোগে তার এক সহকর্মী গ্রেপ্তার * কোটালীপাড়ায় হাসিনাকে হত্যাচেষ্টার মামলায় ফায়ারিং স্কোয়াডে ১০ আসামির মৃত্যুদণ্ডের রায়

Bangladesh Manobadhikar Foundation

Khan Air Travels

পেট্রলবোমায় চালক হত্যাকারীদের প্রতিরোধ করতে হবে

বিডিনিউজডেস্ক ডেস্ক | তারিখঃ ০১.০৫.২০১৬

নৌপরিবহনমন্ত্রী ও বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের কার্যকরী সভাপতি শাজাহান খান বলেছেন, মে দিবসে শপথ নিতে হবে,

যারা পেট্রলবোমা মেরে চালক-হেলপার হত্যা করেছে, তাদের প্রতিরোধ করতে হবে। মহান মে দিবস উপলক্ষে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বাংলাদেশ সড়ক শ্রমিক ফেডারেশন আয়োজিত র‍্যালির আগে দেওয়া বক্তব্যে মন্ত্রী এ কথা বলেন। খবর বাসসের। মন্ত্রী বলেন, সড়ক পরিবহন শ্রমিকদের দাবি আদায়ের আন্দোলন চলবে। এ জন্য সড়ক পরিবহনের শ্রমিকদের ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক ওসমান আলী। এতে বক্তব্য দেন সংগঠনের সাংগঠনিক সম্পাদক মোকলেছুর রহমান, প্রচার সম্পাদক ইমাম হোসেন বাচ্চু প্রমুখ। শাজাহান খান বলেন, বিএনপি-জামায়াত ব্যর্থ অসহযোগ আন্দোলন করে ৯২ জন গাড়ির চালক, সহকারীকে পুড়িয়ে-পিটিয়ে হত্যা করেছে। এক হাজার গাড়ি পুড়িয়েছে। আর তিন হাজার গাড়ি ভাঙচুর করেছে। তিনি বলেন, আন্দোলন করতে গিয়ে সড়ক শ্রমিকদের প্রাণ যাবে, এমনটা পারে না।

মন্ত্রী বলেন, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শ্রমিকবান্ধব। তিনি সড়ক শ্রমিকদের কল্যাণ ফান্ডে টাকা দিয়েছেন। আরো দেবেন। পোশাকশ্রমিকদের বেতন বাড়ানের জন্য সক্রিয় ছিলেন প্রধানমন্ত্রী। তারই অনুরোধে পোশাকমালিকরা শ্রমিকদের বেতন বাড়িয়ে দিয়েছেন। মন্ত্রী বলেন, বিভক্ত সব শ্রমিককে এককাতারে দাঁড়াতে হবে। নইলে দাবি আদায় করা যাবে না। সমাবেশ শেষে সড়ক পরিবহন শ্রমিকদের একটি র‍্যালি প্রেসক্লাব থেকে শুরু হয়ে মতিঝিল সড়ক পরিবহন ফেডারেশনে অফিসের সামনে গিয়ে শেষ হয়।