Bangladesh Manobadhikar Foundation

Khan Air Travels

Premier Bank Ltd

গরু বন্ধের পর পাটেও নিষেধাজ্ঞা

বিডিনিউজডেস্ক.কম | তারিখঃ ১৩.০৯.২০১৫

ভারত সরকার ভারত থেকে গরু দেওয়া বন্ধ করে দেওয়ার পর এবার বাংলাদেশ থেকে ভারতে পাট ও পাটজাতদ্রব্য রফতানি বন্ধ করে দিয়েছে । ভারত সরকারের বৃহস্পতিবার এক প্রজ্ঞাপন জারির কারণে ওইদিন বিকেল ৩টা থেকে বেনাপোল স্থল বন্দর দিয়ে ভারতে পাট রফতানি বন্ধ হয়ে যায়।

খুলনার অন্যতম পাট রফতানিকারক ঢাকা ট্রেডিং লিমিটেডের ম্যানেজিং ডাইরেক্টর টিপু সুলতান বলেন, বৃহস্পতিবার ভারতের পাট কমিশন প্রজ্ঞাপন জারির পর থেকে পাটবোঝাই কোন ট্রাক ভারতে প্রবেশ করতে দেয়া হয়নি। তিনি দাবি করেন, খুলনার পাট রফতানিকারকদের একশত ট্রাক আটকা পড়ে গেছে। অনেক রফতানিকারক ট্রাক ডেমারেজের ভয়ে পাটবোঝাই ট্রাক ফেরত নিয়ে এসেছেন।জুট কমিশনের জারি করা প্রজ্ঞাপনের সঙ্গে ভারতীয় আমদানিকারকদের নতুন ফরমেট করা ফরম দেয়া হয়েছে। সেটি পূরণ করে নতুনভাবে রেজিস্ট্রেশন করতে বলা হয়েছে। যদিও সকল আমদানিকারকের আগে থেকেই আমদানি-রফতানি লাইসেন্স রয়েছে। এই প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, প্রতি চালান আমদানির পূর্বে কমিশন থেকে চালান হিসেবে এনওসি নিতে হবে।
ভারতে আমদানি করা পাট সে দেশে নেই এমন নিশ্চয়তা দেবার পরই ভারতে আমদানি করা যাবে। একইভাবে ভারতের জুট মিল ছাড়া কোন আমদানিকারক পাট মজুদ করতে পারবে না।বাংলাদেশ হতে প্রতিবছর ২০ থেকে ২৫ লাখ বেল পাট রফতানি হত। কিন্তু গত কয়েক বছর থেকে চীন, পাকিস্তান ইউরোপ পাট আমদানি না করায় তা নেমে আসে ৮/৯ লাখ বেলে। যার ৮০-৯০ ভাগই ভারতে রফতানি হত, যা দিয়ে ভারতের জুট মিলগুলো বস্তা তৈরি করে থাকে। এই পাট রফতানি খাতে রাষ্ট্রয়ত্ব ব্যাংকগুলোর প্রায় কয়েক হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগ শুধু খুলনায় রয়েছে। পাট রফতানিতে ধস নামলে সে খাতেও অচলাবস্থার সৃষ্টি হবে।
এই পাট রফতানি খাতের সঙ্গে এদেশের কৃষক ছাড়াও কয়েক লাখ শ্রমিক জড়িত। চলতি বছর পাট মৌসুম শুর হবার পর থেকে কাঁচা পাটের বাজার চাঙ্গা ছিল। বৃহস্পতিবার ভারত পাট গ্রহণ করছে না শুনে শুক্রবার খুলনার দৌলতপুর মোকামে পাট কেনাবেচা বন্ধ হয়ে গেছে। পাট ব্যবসায়ীদের অভিমত এ ব্যাপারে এখন বাংলাদেশ সরকারকে উদ্যোগ গ্রহণ করতে হবে। অন্যথায় সোনালী আশখ্যাত পাট শিল্পে আবারো ধস নেমে আসবে।