মুদ্রণ


আন্তর্জাতিক ডেস্ক  | তারিখঃ  ০৩.০৮.২০১৫

অবকাশ যাপন সংক্ষিপ্ত করে ফরাসি অবকাশ যাপন কেন্দ্র ফ্রেঞ্চ রিভিয়েরা ত্যাগ করলেন সৌদি বাদশাহ সালমান।

ফ্রেঞ্চ রিভিয়েরায় তার সদলবলে অবস্থানকে কেন্দ্র করে স্থানীয় অধিবাসীদের বিরূপ প্রতিক্রিয়ার মুখে সৌদি বাদশার এই ফ্রান্স ত্যাগ বলে ধারণা করা হচ্ছে।প্রায় অর্ধ সহস্রাধিক সঙ্গী-সাথী এবং অনুচরকে নিয়ে রোববার ফ্রান্স থেকে মরক্কো গমন করেন সৌদি বাদশাহ।এর আগে সৌদি বাদশার অবকাশ যাপনকে কেন্দ্র করে তার নিরাপত্তার জন্য ফ্রেঞ্চ রিভিয়েরায় অবস্থিত একটি জনপ্রিয় সৈকত বন্ধ করে দেয় ফরাসি কর্তৃপক্ষ। সরকারের এ সিদ্ধান্তে ব্যাপক প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয় ফ্রান্সে। এ সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে একটি গণস্বাক্ষরে স্বাক্ষর করেন প্রায় এক লাখ লোক।আট দিন আগে ফ্রেঞ্চ রিভিয়েরার ভ্যালোরিস এলাকায় অবস্থিত নিজের ব্যক্তিগত ভিলায় আসেন সৌদি বাদশা। তার সঙ্গে ছিলেন প্রায় একহাজার সঙ্গীসাথী। সেখানে তিন সপ্তাহ ছুটি কাটানোর পরিকল্পনা ছিলো সৌদি বাদশার।ভ্যালোরিসের সমুদ্র উপকূলে সৌদি বাদশার ব্যক্তিগত ভিলার ধার ঘেষেই অবস্থিত পর্যটকদের কাছে জনপ্রিয় মিরানডো সৈকত।সৌদি বাদশার নিরাপত্তা নিশ্চিত করতেই ওই সৈকতটি বন্ধ করে দেয়া হয় বলে জানায় ফরাসি কর্তৃপক্ষ। তবে সমালোচকদের দাবি, এই সিদ্ধান্ত আইনের চোখে সবার সমান অধিকারের বিষয়টিকে ক্ষুন্ন করছে।তবে বিরূপ পরিস্থিতির কারণে সৌদি বাদশার ফ্রান্স ত্যাগের বিষয়টি অস্বীকার করেছে সৌদি রাজপরিবার। বাদশার ঘনিষ্ঠ একটি সূত্র জানিয়েছে, ফ্রান্স থেকে সৌদি বাদশার মরক্কো গমন তার ছুটি কাটানোর পরিকল্পনারই একটি অংশ। এ ঘটনার সঙ্গে ফ্রান্সে উদ্ভূত পরিস্থিতির কোনো সম্পর্ক নেই। তবে সৌদি বাদশা চলতি গ্রীষ্মে ফ্রান্সের ওই ব্যক্তিগত ভিলায় আর ফিরবেন কি না তা এখনও পরিষ্কার নয়।এদিকে সৌদি বাদশার এলাকা ত্যাগের প্রেক্ষিতে সোমবার ওই সমুদ্র সৈকতকে ফের খুলে দেয়ার কথা জানিয়েছে স্থানীয় কর্তৃপক্ষ।