Print

যুক্তরাষ্ট্রের ফার্গুসনে জরুরি অবস্থা
আন্তর্জাতিক ডেস্ক  | তারিখঃ  ১১.০৮.২০১৫

বিবিসি ও আলজাজিরা অনলাইনের এক খবরে মঙ্গলবার জানায় শ্বেতাঙ্গ পুলিশের হাতে কৃষ্ণাঙ্গ তরুণ মাইকেল ব্রাউন হত্যার এক বছর পূর্তিতে ফার্গুসনে রোববার থেকে বিক্ষোভ করছে স্থানীয় জনতা ও মানবাধিকারকর্মীরা।

রোববার বিক্ষোভের সময় এক কৃষ্ণাঙ্গ তরুণ পুলিশের হাতে নির্যাতিত হওয়ার প্রতিবাদে বিক্ষোভ আরো ফুঁসে উঠেছে। এই কৃষ্ণাঙ্গ তরুণের বিরুদ্ধে গুলি ছোড়ার অভিযোগ এনে তাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।টাইরোন হ্যারিস নামের ১৮ বছর বয়সি কৃষ্ণাঙ্গ তরুণের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেছে ফার্গুসন পুলিশ।এদিকে মিসৌরির গভর্নর জয় নিক্সন বিক্ষোভকারীদের শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বজায় রাখার আহ্বান জানিয়েছেন।২০১৪ সালের আগস্ট মাসে ১৮ বছর বয়সি মাইকেল ব্রাউন এক শ্বেতাঙ্গ পুলিশ কর্মকর্তার গুলিতে নিহত হন। পরে মার্কিন গ্রান্ড জুরি ও বিচার বিভাগের তদন্তে প্রমাণিত হয় ব্রাউন নির্দোষ ছিলেন।প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, সোমবার মধ্যরাতে ফার্গুসনের ওয়েস্ট ফ্লোরিস্যান্ট অ্যাভিনিউয়ে বিক্ষোভকারীরা জড়ো হয়। এখানেই গত বছর বিক্ষোভ হয়েছিল। গত রাতে সেখানে বিক্ষোভকারীরা স্লোগান দিতে থাকে কিন্তু সেখানে কোনো সহিংসতা হয়নি।এদিকে রোববার ও সোমবার অর্ধশতাধিক বিক্ষোভকারীকে গ্রেফতকার করেছে পুলিশ। এর জেরে বিক্ষোভ আরো শক্তিশালী হচ্ছে।কৃষ্ণাঙ্গদের দাবি সমঅধিকারের। বর্ণের বিচারে বহু প্রাচীন যে সামাজিক বৈষম্য বিরাজ করছে যুক্তরাষ্ট্রে, তার অবসান চায় বিক্ষোভকারীরা। নাগরিক অধিকারের বাস্তবায়নের জন্য লড়াই চালিয়ে আসছে কৃষ্ণাঙ্গ ও মানবাধিকারকর্মীরা।