Print

বিডিনিউজডেস্ক  ডেস্ক | তারিখঃ ১৯.০৪.২০১৬

মাগুরা তথা পূর্ববাংলার একসময়ের কিংবদন্তি ফুটবল খেলোয়াড় খবির হোসেন (৮০) সোমবার ভোরে নিজ বাড়িতে বার্ধক্যজনিত কারণে ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল্লাহি ... রাজিউন)।

তিনি তিন ছেলে ও দুই কন্যাসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। ১৯৬২ সাল থেকে কয়েকবার তিনি তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তান প্রাদেশিক পুলিশের ফুটবল দলের হয়ে জাতীয় পর্যায়ে কৃতিত্বের স্বাক্ষর রাখেন। সে সময় তিনি চীন, থাইল্যান্ডের বিপক্ষে দুর্দান্ত খেলে সবার নজর কাড়েন। খবির আহমেদ কলকাতা ফুটবল লীগেও খেলেছেন। তিনি ঢাকার আজাদ ক্লাব ও খুলনা বিভাগীয় দলের হয়ে মাঠ দাপিয়েছেন। ছিলেন স্ট্রাইকার।১৯৫৯ সালে তার নৈপুণ্যে যশোর মডেল স্কুল (এখনকার সরকারি বালক বিদ্যালয়) শিরোপা জিতেছিল তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তান আন্তঃস্কুল ফুটবলে। সে সময় থেকেই তার ফুটবল নৈপুণ্যের খ্যাতি ছড়িয়ে পড়ে।খবির হোসেনের মৃত্যুতে বাংলাদেশ জাতীয় দলের সাবেক স্ট্রাইকার মাগুরার নাজমুল হাসান লোভন শোক প্রকাশ করে জানান, ‘কিংবদন্তি ফুটবলার খবির হোসেন ছিলেন এ অঞ্চলের ফুটবলের একজন অনন্য কারিগর। বহু বড় ম্যাচ তিনি একক নৈপুণ্যে গোল করে দলকে জিতিয়েছেন।’ তার মৃত্যুতে মাগুরা-২ আসনের সংসদ সদস্য এবং যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বীরেন শিকদার, মাগুরা জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পংকজ কুণ্ডু, মাগুরা পৌরসভার মেয়র খুরশিদ হায়দার টুটুল শোক প্রকাশ করেছেন।