মুদ্রণ

যে খাবারগুলো অবশ্যই খাবেন চীনে ঘুরতে গেলে !
বিডিনিউজডেস্ক.কম | তারিখঃ ০৯.০৯.২০১৫

চীনের ঐতিহ্য আর সংস্কৃতিকে ভালো করে জানতে ও তাদের জীবনকে আরো কাছ থেকে বুঝতে কিছু খাবার না খেলেই নয়। জেনে নিন চীনে গেলে যে খাবারগুলো খেতে ভোলা চলবেনা আপনার।

 

১. নুডলস

চীনের দৈনন্দিন খাবার ও যেকোন অনুষ্ঠানের খাবারে বিশেষ একটি জায়গা জুড়ে রয়েছে নুডলস। আর নুডুলসের রকম? গুনে শেষ না করতে পারবার মতন প্রকারভেদ রয়েছে এখানকার নুডলসের। শিচুয়ান ডানডান থেকে শুরু করে লামিয়ান ও চাউমিন, কি নেই এখানে! উৎপাদনের স্থান, উপকরণ, আকৃতি, বিস্তৃতি ও রান্নার ধরনের ওপর নির্ভর করে আলাদা হয় সেগুলো। চেষ্টা করুন চীনে গিয়ে এর যতটা সম্ভব চেখে দেখার।

২. ডাম্পলিং

ডাম্পলিং বা জিয়াওজি হচ্ছে চীনের আরেকটি অত্যন্ত পরিচিত আর ঐতিহ্যবাহী খাবার। উত্তর চীনে নতুন বছরের শুরুতে ডাম্পলিং তৈরি করা প্রতিটি ঘরের জন্যেই অত্যন্ত দরকারী কাজ। এতে মাংস, মাছ, চিংড়ি, মাশরুম ছাড়াও থাকে অনেক রকমের কাটা সবজি। মাংস হতে পারে গরু কিংবা মুরগীর। সবজিগুলো সেদ্ধ করা থাকে ডাম্পলিংএ।

৩. পেকিং ডাক রোস্ট

পেকিং ডাক রোস্টকে বেইজিংএ সবচাইতে বিখ্যাত খাবার বলে মনে করা হয়। পুরো বিশ্বের সুস্বাদের জন্যে খ্যাতি আছে এর। ইউন রাজত্বে জন্ম হলেও বর্তমানে সবজায়গাতে নাম ছড়িয়ে গিয়েছে এর। এবং হয়ে উঠেছে এটি চীনের অন্যতম সাংস্কৃতিক খাবার। তবে রান্নার চাইতেও সবচাইতে বেশি আকর্ষণীয় রোস্টেড ডাকটি কাটার ব্যাপারটি। অত্যন্ত দক্ষ পরিচারকের দ্বারা কাটা হয় সেটা সবার সামনেই। অনেক বেশি পারদর্শী খানসামা ৪-৫ মিনিটে ১০০-১২০ টি টুকরো কেটে ফেলতে পারেন।

৪. ডিম সাম

ডিম সাম বলতে বিশেষ একটি পদ্ধতি বোঝায় যেখানে গরম ধরে রাখতে পারা ছোট্ট পাত্রে অল্প একটু খাবার পরিবেশন করা হয়। সাধারণত রেষ্টুরেন্টে ডিম সাম খেতে যাওয়াকে চা খেতে যাওয়া বলা হয়। কারণ চায়ের সাথেই ডিম সাম খাওয়ার প্রচলন রয়েছে চীনে। তবে দক্ষিণ হংকংএও এখন ডিম সাম পারিবারিক খাবারে যোগ হয়েছে।

৫. হট পট

বেইজিংএ উত্তর চীনের একটি প্রচন্ড বিখ্যাত খাবার হল ভেড়ার মাংসের হট পট। সয়া সস, চিলি তেল, সিসামে পেস্ট, রেড বীন কার্ডসহ আরো অনেকগুলো উপাদানের মাধ্যমে তৈরি হয় এই খাবারটি। কিছু কিছু জায়গায় আপনি নিজেও পছন্দমতন উপাদান যোগ করতে পারেন খাবারে। আর স্বাদ? অসাধারণ! তাই ভুলেও চীনে গেলে হট পট খেতে ভুলবেন না।