মুদ্রণ


স্পোর্টস ডেস্ক | তারিখঃ ২০.০৯.২০১৫

আর্সেনাল, লিভারপুলের মতো জায়ান্ট দলকে হারানো ওয়েস্ট হ্যাম এবারে ম্যানসিটিকে হারালো। এবারের লিগে রীতিমত 'জায়ান্ট কিলার'-এ পরিণত হওয়া দলটি প্রথম কোনো মৌসুমে নিজেদের সেরাটা দিয়ে খেলছে ওয়েস্ট হ্যাম।

তারই ধারাবাহিকতায় ম্যাচের ৩১ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুন করে দলটি। পেদ্রো ওবিয়াংয়ের অ্যাসিস্ট থেকে গোল করেন ডিয়াফ্রা সাখো।ম্যাচের প্রথমার্ধের অতিরিক্ত সময়ে একটি গোল করে ব্যবধান কমায় ম্যানসিটি। ঘরের মাঠে টানা সাতম্যাচ ওয়েস্ট হ্যামের বিপক্ষে না হারা ম্যানসিটির হয়ে একমাত্র গোলটি করেন ডি ব্র্রুইন। সার্জিও আগুয়েরোর অ্যাসিস্ট থেকে গোলটি করেন তিনি।দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে আরও আক্রমণাত্মক হয়ে ওঠে সিটি। ৫৩ থেকে ৫৬- এই চার মিনিটে দারুণ তিনটি সুযোগ পায়, কিন্তু কোনোটিতেই সাফল্য আনতে পারেনি দলটি। একবার তো গোলরক্ষককে একা পেয়েও ব্যর্থ হন ইয়াইয়া তুরে। ৫৭তম মিনিটে প্রতি আক্রমণে ব্যবধান বাড়ানোর সুযোগ পেয়েছিল অতিথিরা।

ফাঁকা জালে বল জড়াতে পারেননি দ্বিতীয় গোলদাতা সাখো।আক্রমণ-প্রতি আক্রমণে জমে ওঠা লড়াইয়ে ৬৩তম মিনিটে আরেকটি সুযোগ নষ্ট করেন কোত দি ভোয়ার মিডফিল্ডার তুরে। তিন মিনিট পর হেসুস নাভাসের শট ঠেকিয়ে দিয়ে সিটিকে আরেকবার হতাশ করেন অতিথি গোলরক্ষক আদ্রিয়ান।বাকি সময়ে ওয়েস্ট হ্যামের রক্ষণে একচেটিয়া চাপ ধরে রাখলেও কাঙ্ক্ষিত গোলের দেখা পায়নি সিটি।দ্বিতীয়ার্ধের পুরোটা সময় ওয়েস্ট হ্যামের জাল অক্ষত রাখা স্প্যানিশ গোলরক্ষক আদ্রিয়ান বেশ কয়েকটি অসাধারণ সেভ করেন। ৮৫তম মিনিটে ডি ব্রুইনের কর্নারে নিকোলাস ওতামেন্দির হেড দারুণ দক্ষতায় ঠেকিয়ে দেওয়া তারই একটি উদাহরণ।এই জয়ে ৬ ম্যাচে ১২ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছে ওয়েস্ট হ্যাম। শীর্ষে থাকা সিটির পয়েন্ট ১৫।