Print

সীমান্তে গ্রামবাসীর সংঘর্ষে গোলাগুলি

বিডিনিউজডেস্ক ডেস্ক | তারিখঃ ০৭.০৫.২০১৬

দৌলতপুর সীমান্তের চল্লিশপাড়া গ্রামে পূর্ব বিরোধের জের ধরে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ ও গুলি বর্ষণের ঘটনা ঘটেছে।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) সদস্যরা বেধড়ক লাঠিচার্জ করে। এতে আহত হয় অন্তত সাতজন।শুক্রবার (৬ মে) উপজেলার রামকৃষ্ণপুর ইউনিয়নের সীমান্ত সংলগ্ন চল্লিশপাড়া গ্রামে এ সংঘর্ষ হয়। আহতদের স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেয়া হলেও গুরুতর অবস্থায় অনেককেই দৌলতপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।খবর পেয়ে দৌলতপুর থানার পরিদর্শক (ওসি, তদন্ত) আসাদুজ্জামান চাকলাদারের নেতৃত্বে সঙ্গীয় পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে গুলিবর্ষকারীদের গ্রেপ্তারে অভিযান চালায়।দৌলতপুর থানার পরিদর্শক আসাদুজ্জামান চাকলাদার জানান, ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন সংক্রান্ত বিষয়ে পূর্ব বিরোধ ও ফসলের জমিতে ঘাস কাটা নিয়ে চল্লিশপাড়া গ্রামের শরিফুল ইসলাম কামু ও আমজাদ হোসেনের লোকজনের মধ্যে প্রথমে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে তারা সংঘর্ষে লিপ্ত হয়।সংঘর্ষ চলাকালে শরিফুল ইসলাম কামু প্রতিপক্ষকে লক্ষ্য করে পরপর দুই রাউন্ড গুলি বর্ষণ করে। গুলির শব্দে এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়লে গ্রামবাসী বিক্ষুব্ধ হয়ে ওঠে। তারা হামলকারীদের ধাওয়া দিলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে স্থানীয় রামকৃষ্ণপুর বিওপির বিজিবি সদস্যরা ঘটনাস্থলে আসে। তারা হামলাকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে বেধড়ক লাঠিচার্জ করে। এতে কারু (৪২), আলাউদ্দিন (৩০), নাহিদ (২৪), হাবিল (৩৫) ও মিনাজুলসহ (৩২) কমপক্ষে সাতজন আহত হয়।