Print

ভাইকে পিটিয়ে মারল আ.লীগের ‘কেন্দ্রীয় নেতা’

বিডিনিউজডেস্ক ডেস্ক | তারিখঃ ১০.০৫.২০১৬

জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে ঝিনাইদহের মহেশপুরে নিজের ভাইকে পিটিয়ে হত্যা করলো নিজেকে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির সহ-সম্পাদক

পরিচয়দানকারী এ টি এম আজিবর রহমান মোহন।

মঙ্গলবার সকালে মহেশপুরের বজরাগ্রামের আমবাগানে এ ঘটনা ঘটে। অবশ্য আওয়ামী লীগের ওয়েবসাইটে কোনো কমিটিতেই তার নাম পাওয়া যায়নি। স্থানীয়রা জানায়, নিজেকে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতা পরিচয় দিয়ে মোহন এলাকায় দীর্ঘ দিন ধরে নানা অপকর্ম করে আসছিল আজিবর রহমান। এছাড়া নিজের পরিবারের সদস্যদের নানাভাবে হয়রানি ও অত্যাচারও করে আসছিল।

বাবার সম্পত্তি নিজের দখলে নিয়ে ভাইদের তা থেকে বঞ্চিত করে আসছিল বেশ কয়েক বছর যাবত। এরই জের ধরে আজ সকালে তার বড় ভাই মজিবর রহমান খোকন আম বাগানে গেলে আজিবর রহমান তাকে পিটিয়ে হত্যা করে।

এদিকে হত্যার ঘটনাটি ধামাচাঁপা দিতে খোকনকে কোটচাঁদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে স্টোক করেছে বলে চিকিৎসককে জানায় আজিবর রহমান। চিকিৎসক খোকনকে মৃত বলে ঘোষণা করলে তার মৃতদেহ বাড়িতে ফেরত নিয়ে যায়। ঘটনাটি এলাকাবাসী জানলে আজিবর রহমানকে পিটুনি দিয়ে ঘরে আটকে রাখে।

নিহতের ছোট বোন শামীমা আক্তার বলেন, ‘জমি দখল করতে না দেয়ার জন্য আমার বড় ভাইকে পিটিয়ে হত্যা করেছে ছোট ভাই আজিবর রহমান।

তিনি আরো বলেন, ‘আমার মাকেও অত্যাচার করে হত্যা করেছে মোহন। বাবার সম্পত্তি নিজে দখল করে নিয়েছে।’ এ ব্যাপারে মহেশপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আমিনুল ইসলাম বিপ্লব জানান, এলাকাবাসী মোহনকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে। নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ঝিনাইদহ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে।