Nabodhara Real Estate Ltd.

Khan Air Travels

Premier Bank Ltd

বিডিনিউজডেস্ক.কম 
তারিখঃ ২৩.০৭.২০১৫
নওগাঁ আধুনিক সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রোগী আব্দুস সালাম (৪৫) এর লাশ হাসপাতাল চত্বর থেকে আজ সকালে পুলিশ উদ্ধার করেছে। হাসপাতালে থাকা সালামের স্ত্রী খুশী বেগম ও শ্বাশুড়ী সাহিদা বেগম পলাতক রয়েছে। লাশ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরন করেছে।

নিহত আব্দুস সালাম শহরের আনন্দনগর সরদার পাড়া মহলার আহম্মদ আলী মন্ডলের পুত্র। নিহতের চাচাতো ভাই মকছেদ জানান, নিহত আব্দুস সালামের নিজ বাড়ী মঙ্গলবার রাত ১০টার দিকে অসুস্থ হয়ে পড়লে তার ভাই, স্ত্রী শ্বশুড় শ্বাশুড়ীসহ কয়েকজন নওগাঁ আধুনিক হাসপাতালে সার্জারী ওয়ার্ডে ১২ নং বেডে ভর্তি করে দেয়। ভর্তির পর কিছুটা সুস্থ হলে স্ত্রী ও শ্বাশুড়ীকে রেখে সবাই রাত ১২টা দিকে চলে আসে। বুধবার সকালে স্ত্রী ও শ্বাশুড়ী মোবাইলে বাড়ীতে জানায় সালামকে হাসপাতাল থেকে আর পাওয়া যাচ্ছে না। পরে হাসপাতালের আরএমওর রুমের পিছন দিকে একটি লাশ উপর হয়ে পড়ে থাকতে দেখে পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ সালামের লাশ উদ্ধার করে। ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরন করে। পরিবারের দাবী, তার ভাইয়ের শ্বশুড়

বাড়ীতে দীর্ঘদিন থেকে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছিল। শ্বশুড় বাড়ীর লোকজন সুপরিকল্পিত ভাবে হত্যা করে রক্তাক্ত অবস্থায় লাশ

হাসপাতালের পিছনে ফেলে রেখে যায়। এ ঘটনার পর থেকে স্ত্রী ও শ্বাশুড়ী পলাতক রয়েছে। সদর মডেল থানার অফিসার্স ইনচার্জ জাকিরুল ইসলাম জানান, খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরন করেছে। লাশের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। পুলিশে ধারনা, তাকে হাসপাতালের বেড থেকে ডেকে নিয়ে গিয়ে সুপরিকল্পিত ভাবে হত্যা ভবনের পিছনে হত্যা করে লাশ ফেলে রেখে গেছে। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কফিল উদ্দীন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত নিহতের ভাই বাদী হয়ে সদর মডেল থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছিল।