Print

বিডিনিউজডেস্ক.কম | তারিখঃ ১৮.০৮.২০১৫

সবুজে ঘেরা রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়, ক্যাম্পাসের প্রতিটি জায়গা সাজানো-গোছানো।

তাই ক্যাম্পাসে প্রবেশের পর যে কারো মন ফুরফুরা হতে বাধ্য। এই সবুজে ঘেরা ক্যাম্পাসকে যেন সাপখোপও আপন করে নিয়েছে। তাই যেখানে-সেখানে মেলে সাপের দেখা। তবে এই সাপ এখন ভয়ের কারণ হয়েছে দাঁড়িয়েছে।  বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. মুহম্মদ মিজানউদ্দিনের বাসভবনেও সাপের উৎপাত দেখা দিয়েছে। গত দুই দিনে পাঁচটি বিষধর সাপ মারা হয়েছে বলে জানিয়েছেন উপাচার্য বাসভবনের প্রহরী মো. নাসিম। মো. নাসিম বলেন, ‘প্রায়ই এখন বাসভবনের ভেতরে বিষধর সাপগুলো দেখা দিচ্ছে। গতকাল রোববার বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে প্রায় পাঁচ ফুট দৈর্ঘ্যের একটি বিষধর সাপ মারা হয়েছে। এ ছাড়া আজ সোমবার বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে পরপর চারটি বিষধর সাপ মারা হয়েছে। এ সময় একটি সাপ আমাকে কামড়াতে তেড়ে আসছিল। কোনোভাবে সাপটাকে আঘাত করে নিজে রক্ষা পাই।’ সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, আজ নাসিম চারটি সাপ মেরে উপাচার্য বাসভবন সংলগ্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্যারিস রোডের পাশে রেখে দিয়েছেন। এর মধ্যে চারটি সাপই অত্যন্ত বিষধর বলে জানিয়েছে প্রত্যক্ষদর্শীরা। এ ছাড়া গত কয়েক দিনে বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হল ও মেয়েদের কয়েকটি হলে বেশ কিছু সাপ দেখা গেছে বলে শিক্ষার্থীরা জানিয়েছেন। এই সম্পর্কে বিশ্ববিদ্যালয়ের স্টুয়ার্ড শাখার সহকারী রেজিস্ট্রার মো. ইলিয়াস হোসেন বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়কে সাপসহ সব ধরনের পোকামাকড় থেকে রক্ষা করতে ক্যাম্পাসের প্রায় সব জায়গাই পরিষ্কার রাখা হচ্ছে। এখন যেহেতু উপাচার্যের বাসভবনেই সাপের উৎপাত দেখা দিয়েছে, তাই উপাচার্যের সঙ্গে কথা বলে এর প্রতিকারের ব্যবস্থা করা হবে।